ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণে পাকিস্তানে মৃত ১২৮, একই দিনে গ্রেফতার নওয়াজ শরিফ

ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণে পাকিস্তানে মৃত ১২৮

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণে পাকিস্তানে মৃত ১২৮ । প্রথমে ৭০ জনের মৃত্যুর খবর থাকলেও ভোর হতেই তাঁর সংখ্যা বাড়তে থাকে লাফিয়ে লাফিয়ে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানা গিয়েছে। পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও ও তাঁর মেয়ে লাহৌর বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতারের দিনই ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল পাকিস্তানেরই কুয়েত্তা। দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানের কুয়েত্তায় শুক্রবার এক রাজনৈতিক র‍্যালিতে এই আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটে।

দেশ জুড়ে সামনেই রয়েছে নির্বাচন। তার আগে এই বিস্ফোরণের জেড়ে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। শুক্রবার নির্বাচনী প্রচারের এমনই এক র‍্যালিতে জোড়াল এই বিস্ফোরণে আপাতত ৭০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে। আহত ১২০ জন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। বালুচিস্তানের হেলথ মিনিস্টার ফৈয়জ কাক্কর বলেন, ‘‘ছ’টি বিভিন্ন হাসপাতালে ৭০টি দেহ পাঠানো হয়েছে। ১২০ জন আহতর চিকিৎসা চলছে। তাদের মধ্যে ১৫ থেকে ২০ জন আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে।’’

বালুচিস্তানের রাজধানী কুয়েত্তার কাছে মাস্তাং শহরে ঘটে এই বিস্ফোরণের ঘটনা। তার কয়েক ঘণ্টা আগে দেশের উত্তর-পশ্চিমে বান্নুতে বিস্ফোরণে কম করে মৃত্যু হয়েছে চার জনের। এ দিনই লাহৌর বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার করে নেওয়া হল নওয়াজ শরিফ ও তাঁর কন্যাকে। আগে থেকেই সেই বার্তা ছিল। দেশে পা রাখতেই গ্রেফতার করে নেওয়া হল। বিমানবন্দর থেকে সরাসরি তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় জেলে।

আমেরিকায় খুন ভারতীয় ছাত্র

এই গ্রেফতার ঘিরে বিমানবন্দর থেকে গোটা শহর জুড়ে মোতায়েন ছিল ১০ হাজারের উপর পুলিশ। যাতে সমর্থকরা কোনও সমস্যা না করতে পারে। দুপুর ২টো থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত শহর জুড়ে সব মোবাইল ফোন সার্ভিসও বন্ধ করে দেওয়া হয়। বিমানবন্দর থেকে রাওয়ালপিন্ডি নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাঁদের। আবুধাবি বিমানবন্দর থেকে লাহৌরের বিমানে ওঠার আগে সাক্ষাৎকারে নওয়াজ শরিফ বলেন, ‘‘আমাদের সরাসরি জেলে নিয়ে যাওয়া হবে। কিন্তু আমি যা করেছি সেটা পাকিস্তানের মানুষের জন্য। বলিদান দিয়েছি আগামী প্রজন্মের জন্য। এরকম সুযোগ আর আসবে না। আসুন সবাই মিলে পাকিস্তানের ভাগ্য তৈরি করি।’’

৬৮ বছরের শরিফকে ১০ বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। ৪৪ বছরের মরিয়মকে সাত বছরের জেল। দু’জনের নাম জড়িয়েছে নানারকম দুর্নীতিতে। তার মধ্যে রয়েছে লন্ডনে চারটি ফ্ল্যাট কেনা। সঙ্গে রয়েছে পানামা পেপার স্ক্যান্ডাল। মরিয়ম বলেন, ‘‘আমাদের জন্য খুব কঠিন সময়। আমার মা ভেন্টিলেশনে। জানি না এর পর কী হবে। মাকে এ ভাবে একা ফেলে যেতে হবে। কিন্তু এটা আমাদের জাতীয় ডিউটি।’’