বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বের ম্যাচ খেলতে ভারতীয় দলে ৩ বাঙালি

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ড্র

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বের ম্যাচ খেলতে বুধবারই রওনা হয়ে যাচ্ছে ভারতীয় ফুটবল দল। বাংলার তিন ফুটবলার এবং এটিকে মোহনবাগান ক্লাবে খেলা আরও দুই ফুটবলার রয়েছেন এই দলে। বঙ্গজাত তিন ফুটবলার ডিফেন্ডার প্রীতম কোটাল, শুভাশিস বসু ও মিডফিল্ডার প্রণয় হালদার এবং সবুজ-মেরুন শিবিরের ডিফেন্ডার সন্দেশ ঝিঙ্গন ও ফরোয়ার্ড মনবীর সিং-কে রাখা হয়েছে এই দলে। বুধবার রাতে ২৮ জনের ভারতীয় দল দোহায় উড়ে যাবে, যেখানে তাঁদের সঙ্গে যোগ দেবেন প্রধান ইগর স্টিমাচ ও অন্যান্য কোচিং স্টাফ। বিশ্বকাপ রয়েছে ২০২২-এ এবং এশিয়ান কাপ হবে ২০২৩-এ।

দেশ ছাড়ার আগে এই ২৮ জন ফুটবলারেরই গত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কোভিড পরীক্ষা (আরটিপিসিআর টেস্ট) করা হয় ও তাঁদের প্রত্যেকেরই ফল নেগেটিভ আসায় তাঁদের সফরকারী দলে রাখা হয়েছে বলে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন সূত্রে জানা গিয়েছে। পরীক্ষার আগে প্রত্যেককেই গত তিন দিন নয়া দিল্লিতে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে রাখা হয়েছিল বলে জানিয়েছে ফেডারেশন।

বুধবার এক বিবৃতিতে ভারতীয় দলের প্রধান কোচ ইগর স্টিমাচ বলেন, “জুনে বাছাই পর্বের ম্যাচ খেলার আগে এটা (প্রস্তুতির) আদর্শ সময় নয়। অতিমারির জন্য কলকাতায় আমাদের প্রস্তুতি শিবির বাতিল হয়ে যায়। দুবাইয়ে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা ছিল, তাও অতিমারির জন্য বাতিল হয়েছে। তাই দোহায় গিয়ে আমাদের ও ভাল রকম প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হবে”।

জুনের ৩ তারিখে ভারতের প্রথম ম্যাচ এশীয় সেরা কাতারের বিরুদ্ধে, যাদের বিরুদ্ধে গত ম্যাচে এই দোহাতেই ড্র করে সবাইকে চমকে দিয়েছিল স্টিমাচের ভারত। এর পরে ভারত ৭ জুন খেলবে বাংলাদেশ ও ১৫ জুন খেলবে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। সবকটি ম্যাচই হবে দোহার জাসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে।

২৮ জনের যে দল বুধবার ঘোষণা করা হল, তাতে শুধু এফসি গোয়ার গ্ল্যান মার্টিন্স এই প্রথম ভারতীয় শিবিরে ডাক পেয়েছেন। জানুয়ারির দলবদলে এটিকে মোহনবাগান থেকে এফসি গোয়ায় আসার পরে হিরো আইএসএলে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ পান মার্টিন্স। সম্প্রতি এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে যথেষ্ট ভাল খেলেনও তিনি। সম্ভবত সেই কারণেই স্টিমাচ তাঁকে ভারতীয় শিবিরে ডেকেছেন।

দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী জাতীয় দলে ফিরে আসতে পেরে খুশি। অসুস্থতার জন্য এপ্রিলে দুবাইয়ে তিনটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচে তিনি খেলতে পারেননি। ২০২০-২১-এর হিরো আইএসএলের পরে এই প্রথম ভারতীয় দলের সঙ্গে সফর করবেন তিনি। এই প্রসঙ্গে ছেত্রী বলেছেন, “ভারতীয় দলে ফিরে আসাটা আমার কাছে স্বস্তিদায়ক। দোহায় ম্যাচগুলোর দিকে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। গতবার কাতারের বিরুদ্ধে আমি অসুস্থতার জন্য মাঠে নামতে পারিনি। আগামী তিনটি ম্যাচই আমাদের কাছে কঠিন। প্রতিটা ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে হবে আমাদের। হাতে সময়ও বেশি নেই। তাই দোহায় প্রস্তুতি শিবিরে আমাদের একসঙ্গে অনুশীলন খুবই কাজে আসবে। ২০১১-য় ওখানে এশিয়ান কাপে খেলেছিলাম। বেঙ্গালুরু এফসি-র হয়ে এএফসি কাপ ফাইনালেও খেলেছি। তাই দোহা নিয়ে আমার একটা বিশেষ আবেগ রয়েছে”।

ভারত গ্রুপ ই-তে রয়েছে। এ পর্যন্ত ভারত পাঁচ ম্যাচে তিন পয়েন্ট পেয়ে চার নম্বরে রয়েছে। ফলে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়ার আর কোনও বাস্তব সম্ভাবনা তাদের নেই। তবে প্রথম তিনের মধ্যে থাকতে পারলে এশিয়ান কাপে খেলার সম্ভাবনা রয়েছে তাদের।

ভারতের ম্যাচ:

জুন : ভারত বনাম কাতার (ভারতীয় সময় রাত ১০.৩০)

জুন : বাংলাদেশ বনাম ভারত (সন্ধ্যা ৭.৩০)

জুন ১৫: ভারত বনাম আফগানিস্তান (সন্ধ্যা ৭.৩০)

ভারতীয় দল:

গোলকিপার গুরপ্রীত সিং সান্ধু, অমরিন্দর সিং, ধীরজ সিং

ডিফেন্ডার- প্রীতম কোটাল, রাহুল ভেকে, নরেন্দর গেহলট, চিঙ্গলেনসানা সিং, সন্দেশ ঝিঙ্গন, আদিল খান, আকাশ মিশ্র, শুভাশিস বসু

মিডফিল্ডার উদান্ত সিং, ব্রেন্ডন ফার্নান্ডেজ, লিস্টন কোলাসো, রাওলিন বোর্জেস, গ্ল্যান মার্টিন্স, অনিরুদ্ধ থাপা, প্রণয় হালদার, সুরেশ ওয়াঙজাম, লালেঙমাউইয়া রালতে, সহাল আব্দুল সামাদ, মহম্মদ ইয়াসির, লালিয়ানজুয়ালা ছাঙতে, বিপিন সিং, আশিক কুরুনিয়ান

ফরোয়ার্ড ঈশান পন্ডিতা, সুনীল ছেত্রী, মনবীর সিং।

লেখা ও ছবি: ইন্ডিয়ান সুপার লিগ ওয়েব সাইট

(প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)