রোহিত শর্মার চোট নিয়ে কোনও পরিষ্কার ধারণা নেই, বললেন বিরাট কোহলি

সুস্থ রোহিত শর্মা

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: রোহিত শর্মার চোট নিয়ে সংশয় চলছেই। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি বৃহস্পতিবার তা নিয়ে তাঁর অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। তাঁকে যখন রোহিত শর্মার চোট সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয় তিনি জানান, তাঁর সংশয় রয়েছে এবং কোনও পরিষ্কার চিত্র নেই। টিম ম্যানেজমেন্ট রোহিতকে নিয়ে সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে অপেক্ষায় রয়েছে যা দলের জন্য মোটেও ভাল নয় বলেই মনে করছেন অধিনায়ক।

শুক্রবার থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শুরু হচ্ছে একদিনের সিরিজ। তার আগে অন-লাইন সাংবাদিক সম্মেলনে বিরাট কোহলি রোহিত সম্পর্কে তাঁর ধারণার কথা জানান। কোহলি জানান, এই মাসের শুরুতে নির্বাচক কমিটির মিটিংয়ের আগে জানানো হয় রোহিতকে পাওয়া যাবে না।

তিনি বলেন, ‘‘নির্বাচন মিটিংয়ের আগে, আমাদের কাছে ই-মেল আসে যে তাঁকে পাওয়া যাচ্ছে না কারণ আইপিএল-এর সময় ও চোট পেয়েছিল। বলা হয়েছিল, চোটের সব দিক ভাল মতো ওকে বুঝিয়ে বলা হয়েছিল এবং ও বুঝেছে এবং খেলছে না।’’

বাঁ হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছিলেন রোহিত। আপাতত বেঙ্গালুরুর ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে রিহ্যাব করছেন তিনি। এখনও পুরো ফিট হতে তিন সপ্তাহ লাগবে। তার পর যোগ দিয়ে ১৪ দিনের কোয়রান্টিনের পর টেস্ট সিরিজে আর খেলার কোনও সম্ভাবনা থাকবে না। ১৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে টেস্ট সিরিজ।

আইপিএল-এ চোট পেয়ে বেশ কয়েকটি ম্যাচে বাইরে থাকার পর আবার ফিরেছিলেন রোহিত শর্মা। এবং দলকে চ্যাম্পিয়নও করেন। যেদিন নির্বাচক কমিটি অস্ট্রেলিয়া সফরের দল থেকে তাঁকে বাদ দেন তার পরের দিনই তিনি আইপিএল খেলেন। যদিও সেই সময় বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, রোহিতের মতো প্লেয়ার ফিট হয়ে গেলে দলে ফিরবেন। এবং টেস্ট দলে ফেরানো হয় তাঁকে।

কোহলি এদিন বলেন, ‘‘নির্বাচক কমিটির মিটিংয়ের পর ও আইপিএল-এ খেলেছে এবং আমরা সবাই ভেবেছিলাম ও অস্ট্রেলিয়ার বিমানে উঠবে। আমাদের কাছে কোনও তথ্য ছিল না ও কেন আমাদের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া এল না। কোনও তথ্য নেই, কিছুই পরিষ্কার নয়।’’

তিনি বলেন, ‘‘আমরা ওয়েটিং গেম খেলছি।’’ কোহলি জানান, রোহিতের পরবর্তী পরীক্ষা এনসিএ-তে হবে ১১ ডিসেম্বর। তিনি বলেন, ‘‘এনসিএ থেকে যা খবর পাচ্ছি তাতে ১১ ডিসেম্বর ওকে দেখা হবে আবার। যা মোটেও সঠিক বিষয় নয়। প্রচন্ড সংশয় রয়েছে। অনিশ্চয়তা আর স্বচ্ছ্বতার অভাব রয়েছে।’’ ইশান্ত শর্মাও দলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছতে পারেননি।

তিনি ঋদ্ধিমান সাহার উদাহরণ টেনে বলেন, ‘‘যেমন আমরা সাহা সম্পর্কে জানি ওর রিহ্যাব চলছে এবং ওর ফিটনেস সম্পর্কে আমরা ওয়াকিবহাল। এবং ও টেস্ট সিরিজে দলে যোগ দেওয়ার মতো সুস্থহাত দিকেই এগোচ্ছে। ওরা (রোহিত ও ইশান্ত) যদি এখানে এসে রিহ্যাব করত সাহার মতো তাহলে হয়তো ওদের সাহায্য হত।’’

(খেলার জগতের আরও খবর জানতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)