ISL8 ATKMB vs FC Goa: নতুন কোচের হাত ধরে জয় মোহনবাগানের

ISL 8 NEFC vs ATKMB

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: লিস্টন কোলাসোর গোল ও হুয়ান ফেরান্দোর মস্তিষ্কপ্রসূত কৌশল— বুধবার ফতোরদায় এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে এটিকে মোহনবাগানের (ISL8 ATKMB vs FC Goa) বাজিমাত করার নেপথ্যে মূল দু’টি কারণ। সে দিক থেকে দেখতে গেলে এ দিন এফসি গোয়ার প্রাক্তনিদের কাছেই হেরে গেল এফসি গোয়া। বাড়তি পাওনা রয় কৃষ্ণার গোলে ফেরা। পাঁচ ম্যাচ পর ওপেন প্লে থেকে গোল পেলেন সবুজ-মেরুন বাহিনীর ‘গোলমেশিন’। ম্যাচের শেষ দিকে একটি গোল শোধ করেন জর্জ ওর্টিজ, সৌজন্যে অমরিন্দর সিংয়ের অপ্রত্যাশিত ভুল। না হলে হয়তো লিগের দ্বিতীয় ‘ক্লিন শিট’ নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারত এটিকে মোহনবাগান। কিন্তু ২-১-এ জেতে গতবারের রানার্স আপ-রা।

গত ম্যাচের দলে কোনও পরিবর্তন না করে এ দিন ৪-২-৩-১-এ দল সাজান এটিকে মোহনবাগানের নতুন কোচ হুয়ান ফেরান্দো। তাঁর সদ্য প্রাক্তন ক্লাবের বিরুদ্ধে ম্যাচে যে শুরুতেই গোল তুলে নেওয়াটা উদ্দেশ্য ছিল তাঁর, তা এই ছকে দল সাজানো দেখেই আন্দাজ করা যায়। আক্রমণাত্মক ছকে দল সাজালেও শুরুতে কিন্তু এফসি গোয়াই তাদের চাপে রাখে। প্রথম দশ মিনিটের মধ্যেই দু’টি সুযোগ তৈরি করে নেন মহম্মদ নেমিল ও দেবেন্দ্র মুরগাঁওকর। প্রথমজন গোলের বাইরে মারেন ও পরেরজন সোজা গোলকিপারের গ্লাভসে। তবে ক্রমশ বল পজেশন বাড়িয়ে খেলা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে চলে আসার চেষ্টা শুরু করে এটিকে মোহনবাগান।

২৩ মিনিটের মাথায় চলতি হিরো আইএসএলের পঞ্চম গোলটি পেয়ে যান লিস্টন কোলাসো। প্রতি ম্যাচের মতোই বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে উঠছিলেন তিনি। এই গোলের ক্ষেত্রেও মাঝমাঠে দীপক টাঙরির পাসে বাঁ দিকের উইংয়েই বল পান তিনি। কোণাকুনি কিছুটা এগিয়ে বিপক্ষের বক্সের সামনে থেকে সোজা গোলের উদ্দেশ্যে ‘বানানা কিক’ নেন এবং লাফিয়ে ওঠা গোলকিপার ধীরজ সিংয়ের  মাথার ওপর দিয়ে তা সোজা জালে জড়িয়ে যায়।

গোল খাওয়ার পরে তা শোধ করার জন্য আরও মরিয়া হয়ে ওঠে এফসি গোয়া। ৪০ মিনিটের মাথায় চোট পেয়ে মাঠের বাইরে যেতে বাধ্য হন শুভাশিস। তাঁর জায়গায় নামেন প্রবীর দাস। দ্বিতীয়ার্ধে কর্নার থেকে ৫৬ মিনিটের মাথায় গোল পেয়ে যান সবুজ-মেরুন শিবিরের ‘গোলমেশিন’ হিসেবে খ্যাত রয় কৃষ্ণা। ডানদিক থেকে উড়ে আসা বলে বক্সের মধ্যে অরক্ষিত থাকা রয় ডান পায়ে বুলেট-গতির শটে গোল পেয়ে যান।

এর মধ্যেই অবশ্য একটি গোল শোধ করে দেয় এফসি গোয়া। এই গোলের জন্য অবশ্য গোলকিপার অমরিন্দর সিং-ই মূলত দায়ী। বক্সের মাথা থেকে যে গোলমুখী জোরালো শট নিয়েছিলেন জর্জ ওর্টিজ, তা এই স্তরের যে কোনও গোলকিপারের পক্ষেই আটকানো খুব একটা কঠিন ছিল না। কিন্তু অমরিন্দরের হাত ফস্কে তা গোললাইন পেরিয়ে জালে জড়িয়ে যায়।

এটিকে মোহনবাগান দলঅমরিন্দর সিং (গোল), আশুতোষ মেহতা, প্রীতম কোটাল (অধি), তিরি, শুভাশিস বোস (প্রবীর দাস), দীপক টাঙরি, কার্ল ম্যাকহিউ, মনবীর সিং, হুগো বুমৌস (জনি কাউকো), লিস্টন কোলাসো (লেনি রড্রিগেজ), রয় কৃষ্ণা (ডেভিড উইলিয়ামস)।

(লেখা ও ছবি আইএসএল ওয়েবসাইট)

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)