আইএসএল-এ এসসি ইস্টবেঙ্গল নিয়ে আশাবাদী কোচ মানুয়েল দিয়াজ

আইএসএল-এ এসসি ইস্টবেঙ্গল

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: আইএসএল-এ এসসি ইস্টবেঙ্গল অভিষেক মরশুমে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর এ বার ভোল বদলে নতুন দিশার খোঁজে নামছে। রবিবার প্রথম ম্যাচেই তাদের মুখোমুখি জামশেদপুর এফসি। এই ম্যাচ নিয়ে শনিবার দুপুরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিলেন দলের নতুন স্প্যানিশ কোচ হোসে মানুয়েল দিয়াজ। নিজের দল নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী তিনি। আগের বারের চেয়ে এ বার অনেক ভাল খেলবে তাঁর দল, মনে করেন কোচ। সাংবাদিক বৈঠকের নির্বাচিত অংশ এখানে তুলে ধরা হল।

প্রশ্ন: গতবার এসসি ইস্টবেঙ্গলের হিরো আইএসএল অভিষেক ভাল হয়নি, এ বার কি ঘুরে দাঁড়াতে পারবে আপনার দল?

এটা নতুন মরশুম, নতুন দল, নতুন কোচ। আমরা আত্মবিশ্বাসী, গতবারের তুলনায় এ বার আমরা ভাল খেলব।

পরের ম্যাচই ডার্বি। সেই পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম ম্যাচটা আপনাদের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ?

আপাতত আমরা প্রথম ম্যাচেই মনোনিবেশ করছি। এখনই ডার্বি নিয়ে ভাবছি না। প্রথম ম্যাচে আমাদের আত্মবিশ্বাস জোগাড় করতে হবে। দীর্ঘ প্রস্তুতির পর, আশা করি, আমরা প্রথম ম্যাচে ভাল খেলব।

ভারতে আপনার প্রথম মরশুম শুরুর আগে কেমন লাগছে?

এখানে এসে আমার খুব ভাল অভিজ্ঞতা হয়েছে। স্পেনে সব স্তরের ফুটবলে কাজ করে এসেছি। আশা করি এখানেও ভাল কিছু করতে পারব।

এ বার এসসি ইস্টবেঙ্গলের কাছ থেকে কী ধরনের ফুটবল দেখা যাবে?

আমাদের খেলোয়াড়দের কার কী রকম দক্ষতা, তা জেনে নিয়েছি। যে দল হাতে আছে, তাতে বিভিন্ন স্টাইলে খেলতে পারি আমরা। প্রতি ম্যাচেই বিভিন্ন ধরনের খেলা দেখতে পাবেন হয়তো।

জামশেদপুর এফসি-র বিরুদ্ধে আপনাদের পরিকল্পনা কী?

জামশেদপুর দলে কিছু পরিবর্তন হয়েছে ঠিকই। তবে গতবারের বেশির ভাগ ফুটবলারকেই ওরা রেখে দিয়েছে। তাই গতবারের মতো ফুটবলই খেলতে পারে ওরা। আমাদের নতুন দল। আমরা জানি আমাদের কী করতে হবে। আমাদের সেরাটাই দিতে হবে।

ড্যানিয়েল চিমা সম্পর্কে আপনার কী ধারণা? উনি কি আপনার আক্রমণ বিভাগের সেরা অস্ত্র?

চিমার স্কিল সম্পর্কে ধারণা হয়েছে আমার। ও সত্যিই খুব ভাল খেলোয়াড়। ও যেমন গোল করবে, সতীর্থদের গোল করতেও সাহায্য করবে। ওর মতো একজন খেলোয়াড়কে পেয়ে দারুন লাগছে। তবে পুরো দলকে চিমার পাশে থাকতে হবে। ও তখনই উন্নতি করবে, যখন পুরো দল ওর সঙ্গে থাকবে।

দলের বিদেশিদের নিয়ে আপনার কি ধারণা? ওদেরও তো এটা প্রথম মরশুম?

আমাদের বিদেশি খেলোয়াড়দের অবশ্যই ভাল খেলতে হবে। ওদেরই ফারাক তৈরি করে দিতে হবে। তবে মাত্র চারজন বিদেশি প্রথম এগারোয় থাকতে পারবে। ফলে ওদের পক্ষে কাজটা কঠিন।

স্প্যানিশ কোচেরা ভারতে সফল হচ্ছেন। আপনার কাছে কি এটা চ্যালেঞ্জ?

অজুহাতের কোনও জায়গা নেই। যা করা দরকার, তা আমাদের করতেই হবে। আমার অজুহাত খাড়া করার অভ্যাস নেই। অন্যন্য দলের স্প্যানিশ কোচেরা আইএসএলে অভিজ্ঞ। তবে আমরাও তৈরি।

দলের ভারতীয় খেলোয়াড়দের নিয়ে আপনি সন্তুষ্ট?

আমাদের কাছে এটাই আমাদের সেরা দল। আমাদের এই দল নিয়েই এগিয়ে যেতে হবে ও সব বিভাগে উন্নতি করতে হবে।

(লেখা আইএসএল ওয়েব সাইট থেকে)

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)