ISL 8 ATKMB vs BFC Preview: সেরা চারে ঢুকতে জিততেই হবে বাগানকে

ISL 8 ATKMB vs BFC Preview

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: গত কয়েক দিনে হিরো আইএসএলের (ISL 8 ATKMB vs BFC Preview) লিগ টেবলে যে ভাবে প্রতিদিন এক নম্বর দলের নাম বদলে যাচ্ছে, তাতে এটা স্পষ্ট যে, এই সময়ে মাঠে সক্রিয় না থাকলে ও সাফল্য না পেলে সেরা চারের মধ্যে থাকা অসম্ভব। এটিকে মোহনবাগানের ক্ষেত্রে ঠিক এটাই হয়েছে। হায়দরাবাদ এফসি-র সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগির পরে লিগ টেবলে এক নম্বরে চলে যায় হায়দরাবাদ এফসি। মুম্বই সিটি এফসি ও তাদের সংগ্রহ তখন ১৬ পয়েন্ট করে। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে এটিকে মোহনবাগান কেরালা ব্লাস্টার্সকে সরিয়ে চার থেকে উঠে আসে তিন নম্বরে। কেরালা ব্লাস্টার্স ১৪ পয়েন্ট নিয়ে তখন তিন থেকে নেমে গিয়েছিল চারে। কিন্তু দশ দিন পরে ছবিটা একেবারে অন্যরকম।

কেরালা ব্লাস্টার্স এখন এক নম্বরে। হায়দরাবাদ তিনে ও মুম্বই চারে। জামশেদপুর এফসি এই ক’দিনে সেরা চারে ঢুকে কেরালার পরের জায়গাটাই নিয়ে নিয়েছে। আর যাদের কথা হচ্ছিল, সেই এটিকে মোহনবাগান সেরা চার থেকে ছিটকে বেরিয়ে নেমে এসেছে পাঁচে। এই পাঁচ থেকে ফের সেরা চারে ঢুকতে গেলে শনিবার পন্ডিত জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে বেঙ্গালুরু এফসি-কে হারাতে হবে তাদের। জিতলে শুধু যে সেরা চারে ফিরবে তারা, তা-ই নয়, জায়গা করে নেবে দুই নম্বরে, কেরালার দলের পরেই। তবে যে দলের বিরুদ্ধে শনিবার খেলতে নামবে কলকাতার দল, সেই বেঙ্গালুরু এফসি-র পারফরম্যান্সের গ্রাফ যে ভাবে এগোচ্ছে, তাতে এটা স্পষ্ট যে, তাদের হারানো মোটেই সোজা নয়।

এই ম্যাচে হুগো বুমৌস এবং কার্ল ম্যাকহিউ যখন নেই, তখন গোল করা ও গোল বাঁচানো দুটোই বেশ কঠিন হয়ে উঠতে পারে এটিকে মোহনবাগানের পক্ষে। এফসি গোয়া ছেড়ে এটিকে মোহনবাগানের দায়িত্ব নেওয়ার পরে স্প্যানিশ কোচ হুয়ান ফেরান্দো এখন পর্যন্ত একটিও ম্যাচে হারের মুখোমুখি হননি ঠিকই তবে দলের মধ্যে সমস্যা অনেক বেড়েছে। গোল আসছে ঠিকই, কিন্তু পাশাপাশি গোল খেয়েও চলেছে তারা। দলের রক্ষণের দুর্বলতা ক্রমশ চিন্তা বাড়িয়ে চলেছে ফেরান্দোর। যদিও মুখে বলছেন, এত গোল খাওয়াটা তাঁর কাছে চিন্তার বিষয় নয়, কিন্তু গোল পার্থক্যের হিসাবের সময় এলে যে তাঁর দল অন্যদের তুলনায় পিছিয়ে যেতে পারে সেটা নিশ্চয়ই মাথায় আছে তাঁর। বেঙ্গালুরুর উজ্জীবিত আক্রমণ বিভাগকে সামলাতে রক্ষণে তাদের উন্নতি করা ছাড়া উপায় নেই।

ম্যাচের আগে অনুশীলন করল না কোনও দলই। গত ৫ দিন ধরে এটিকে মোহনবাগান ও ৩ দিন ধরে বেঙ্গালুরু এফসি অনুশীলনেই নামেনি। যার ফলে শনিবার ম্যাচ হওয়া নিয়ে সংশয় রয়েছে।

৯ ম্যাচে ১৮টি গোল খেয়েছে এটিকে মোহনবাগান। গত বার যেখানে সারা লিগে ১৫ গোল খেয়েছিল তারা, সেখানে এই পরিসংখ্যান চিন্তা বাড়ানোর মতোই। মাত্র একটা ম্যাচে ক্লিন শিট রাখতে পেরেছেন গোলকিপার অমরিন্দর সিং। তাঁর যে একটা চোট আছে এবং সেই কারণেই ছন্দে নেই অমরিন্দর, তা স্বীকার করেও নিয়েছেন ফেরান্দো। দ্বিতীয় গোলকিপার অভিলাষ পালেরও চোট বলে জানা গিয়েছে। তার ওপর কোভিড হানায় বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় অসুস্থ। অর্থাৎ, ভাল রকম বিপদের মধ্যে রয়েছে এটিকে মোহনবাগান। গত ম্যাচে কার্ল ম্যাকহিউ বিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের সঙ্গে প্রবল সঙ্ঘর্ষে মাঠে লুটিয়ে পড়েন। তাঁকে অ্যাম্বুল্যান্সে চাপিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়। তাঁর সেরে উঠতে সময় লাগবে। হুগো বুমৌসের মাথা কিছুতেই ঠাণ্ডা হচ্ছে না। পরপর চারটি হলুদ কার্ড দেখে তিনি শনিবারের ম্যাচে নেই। মাঝমাঠ থেকে যে গোল তৈরির প্রক্রিয়ায় সক্রিয় থাকেন এই ফরাসি মিডফিল্ডার, শনিবার বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে আর তা পারবেন না।

এদিকে গত পাঁচ ম্যাচে অপরাজিত থেকে এমনিতেই আত্মবিশ্বাসের স্তর বেড়েছে বেঙ্গালুরু এফসি-র ফুটবলারদের। তার ওপর গত ম্যাচে তারা যে ভাবে মুম্বই সিটি এফসি-কে তিন গোলে হারিয়েছে, তাতে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, পুরনো ও চেনা ছন্দে ফিরে এসেছে সুনীল ছেত্রীর দল। গত দু’টি ম্যাচে ক্লেটন সিলভার কাছ থেকে গোল করার দায়িত্বটা নিজের কাঁধে নিয়ে প্রিন্স ইবারা সফল। দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি গোল করেছেন এই দু’জনই। দল ছন্দে ফেরা শুরু করলেও সুনীল ছেত্রী এখনও নিজের আসল চেহারায় ফেরেননি। এখনও একটাও গোল করেননি বা করানওনি। তিনি ফর্মে ফিরলে আরও সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে বেঙ্গালুরু।

ম্যাচ: এটিকে মোহনবাগান বনাম বেঙ্গালুরু এফসি

তারিখ ও সময়: ১৫ জানুয়ারি, সন্ধ্যা ৭.৩০

(লেখা ও তথ্য আইএসএল ওয়েবসাইট থেকে)

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)