ইস্টবেঙ্গলের হার, লিগ চ্যাম্পিয়নশিপের আরও কাছে মোহনবাগান

কলকাতা লিগে জয়

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: ইস্টবেঙ্গলের হার , লিগ জয়ের সামনে মোহনবাগান। বৃহস্পতিবার পিয়ারলেসের বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গলের ১-২ গোলে হারে মোহনবাগানের কলকাতা লিগ জয়ের সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে গেল। ৯ ম্যাচ খেলে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে এই মুহূর্তে লিগ টেবলের শীর্ষে রয়েছে মোহনবাগান। ইস্টবেঙ্গল সেখানে সম পরিমাণ ম্যাচ খেলে ২০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে।

ডার্বিতে হারতে হারতে শেষ বেলায় ড্র করে মান রেখেছিল ইস্টবেঙ্গল। জেতা ম্যাচ কী ভাবে হেরে গেল মোহনবাগান। মেহতাবের চোট। ডার্বির দিন সব মিলে অনেকটাই ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিল মোহনবাগান। কিন্তু ইস্টবেঙ্গলের এই হার শঙ্করলালের দলকে আবার তুলে আনল চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে। এ বার প্রথম থেকেই লড়াই দিচ্ছিল সবুজ-মেরুন। ৯টি ম্যাচের মধ্যে মোহনবাগানের ঝুলিতে ৭টি জয়, ২টি ড্র। একটিও ম্যাচ হারেনি মোহনবাগান। গোল করেছে ২৩টি, হজম করেছে ৫টি। গোল পার্থক্যেও এগিয়ে মোহনবাগান।

ইস্টবেঙ্গল সেখানে ৯টি ম্যাচের মধ্যে জিতেছে ৬টি, ২টো ড্র ও ১টি হার। গোল করেছে ১৭টি। হজম করেছে ৫টি। এ দিন৬ মিনিটেই পিয়ারলেসের হয়ে গোল করে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ক্রোমা। ৭১ মিনিটে সমতায় ফেরে ইস্টবেঙ্গল। ইস্টবেঙ্গলের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন আইদারা। কিন্তু সমতা ধরে রাখতে ব্যর্থ লাল-হলুদ রক্ষণ। ৭৭ মিনিটে নরহরি শ্রেষ্টার অসাধারণ গোলে বাজিমাত পিয়ারলেসের। ম্যাচের সেরাও তিনি।

বভারতীতে মরসুমের প্রথম ডার্বিতে কেউই জয়ী হতে পারল না

তৃতীয় স্থানে রয়েছে পিয়ারলেস। ৮টি ম্যাচ খেলেছে এই দল। জিতেছে ৫টি। একটি ড্র ও ২টি হার রয়েছে পিয়ারলেসের ঝুলিতে। গোল করেছে ১৩টি। হজম করেছে ৭টি। পয়েন্ট ১৬। এ বার যা অবস্থা তাতে চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান ছাড়া আর কেউই উঠে আসতে পারেনি। মহমেডান রয়েছে চারে। খেলেছে ৭ ম্যাচ। পয়েন্ট ১৩। রেনবোও সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে রয়েছে এক পয়েন্ট পিছনে। কলকাতা কাস্টমস আর পশ্চিমবঙ্গল পুলিশ খেলেছে সব থেকে কম ম্যাচ। দুই দলেরই ম্যাচ সংখ্যা ৬। জর্জ টেলিগ্রাফ ৭ ম্যাচ খেলে ৭ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে ৭ নম্বরে।

পাঠচক্র, এরিয়ান ও টালিগঞ্জ অগ্রগামী ৭টি করে ম্যাচ খেলে রয়েছে ৭, ৭ ও ৪ পয়েন্টে। এফসিআই ৮ ম্যাচ খেলে পেয়েছে মাত্র ৩ পয়েন্ট। প্রথম সাতে রয়েছে মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল, পিয়ারলেস, মহমেডান, রেনবো, কলকাতা কাস্টমস, জর্জ টেলিগ্রাফ।

এ দিনই ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত লিগের নতুন ফিক্সচার দিয়েছে আইএফএ। ইস্টবেঙ্গলের পরের ম্যাচ মহমেডানের বিরুদ্ধে ১১ সেপ্টেম্বর যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে। মহমেডানের বিরুদ্ধে মোহনবাগানের ম্যাচ ১৮ সেপ্টেম্বর যুবভারতীতে। ওটাই লিগের শেষ ম্যাচ। সে দিন একই সময়ে খেলবে ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান। ইস্টবেঙ্গল খেলবে এফসিআই-এর বিরুদ্ধে।  তার আগে মোহনবাগান খেলবে কাস্টমসের বিরুদ্ধে ১২ সেপ্টেম্বর।

দুই দলের হাতেই রয়েছে দুটো করে ম্যাচ। তিন পয়েন্ট এগিয়ে মোহনবাগান। মহমেডানই দুই দলের জন্য একটু হলেও কঠিন প্রতিপক্ষ। মোহনবাগানকে ধরে রাখতে হবে অপরাজিত থাকার রেকর্ড। তা হলেই কেল্লাফতে। যা এ দিন হারিয়েছে ইস্টবেঙ্গল।