ইস্টবেঙ্গলকে এনওসি কোয়েসের, উজ্জ্বল হচ্ছে আইএসএল খেলার সম্ভাবনা

ইস্টবেঙ্গলকে শুভেচ্ছা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: ইস্টবেঙ্গলকে এনওসি কোয়েসের। শুক্রবার শেষ পর্যন্ত স্বস্তি এল ইস্টবেঙ্গলের ঘরে। এ দিন সন্ধ্যায় ইস্টবেঙ্গলের প্রাক্তন স্পনসর সংস্থা ক্লাবকে স্পোটিং রাইটের ছাড়পত্র দিয়ে দিল। যা এতদিন ছিল কোয়েসের হাতে। ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পর সেটা তাঁদের কাছেই রেখে দিয়েছিল সংস্থা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ই-মেল করে সেই ছাড়পত্র পাঠিয়ে দেওয়া হয় ক্লাবকে। আবার ক্লাবের সম্পূর্ণ মালিকানা চলে এল ক্লাবের কাছে। যার ফলে আগামী মরসুমে মাঠে নামতে আর কোনও বাঁধা থাকল না ইস্টবেঙ্গলের।

তবে কী খেলবে ইস্টবেঙ্গল, আই লিগ না আইএসএল? সেটাই এখন সব থেকে বড় প্রশ্ন। তবে ক্লাব চাইছে এএফসির ক্লাব লাইসেন্সিং-এর কাজ শেষ করে ইন্ডিয়ান সুপার লিগ খেলতে। সেই লক্ষ্যে নতুন স্পনসরের সঙ্গে কথাও অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে।

শোনা যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগের জাকার্তার ভারতীয় এক ব্যবসায়ী প্রসূণ মুখোপাধ্যায় এ বার ক্লাবের পিছনে টাকা ঢালতে রাজি হয়েছেন। তিনি টাকা ঢালবেন ইস্টবেঙ্গলকে আইএসএল খেলানোর জন্যই। যে কারণে এটা প্রায় নিশ্চিত যদি সব ঠিক থাকে তাহলে পররে বছর মোহনবাগানের পাশাপাশি ইস্টবেঙ্গলও আইএসএল খেলতে চলেছে।

কিছুদিন আগেই এটিকের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে জন্ম নিয়েছে নতুন ক্লাব এটিকে মোহনবাগান। এবং মোহনবাগানের সবুজ-মেরুন জার্সিও রেখে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে হোম জার্সি হিসেবে। যাতে কোনওভাবেই মোহনবাগানের আবেগকে খর্ব করা না হয়। এ বার ইস্টবেঙ্গল আইএসএল-এ ঢুকে পড়লে এই টুর্নামেন্ট যে অন্যমাত্রা পাবে সেটাই স্বাভাবিক।

তবে কীভাবে কোন রাস্তায় আইএসএল খেলতে পারবে ইস্টবেঙ্গল সেটা একটা বড় প্রশ্ন। কলকাতা থেকে খেলবে এটিকে মোহনবাগান এটা তো নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে একই শহর থেকে আরও একটি দল খেলতে পারবে কিনা সেটা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। কারণ আইএসএল শহর ভিত্তিক দল। এই পরিস্থিতিতে ইস্টবেঙ্গলকে অন্য শহর থেকে সেই শহরের নামে খেলতে হলে সেটা কতটা কার্যকরী হবে সেটাও একটা বিষয়।

এর আগে টুইট করে বেঙ্গালুরু এফসির কর্ণধার পার্থ জিন্দাল ইস্টবেঙ্গলকে আইএসএল-এ যোগ দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছিল। তবে ইস্টবেঙ্গল আইএসএল খেললে অন্য ক্লাবের সঙ্গে মিলে খেলবে না একাই খেলবে তার জন্য কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হবে সঙ্গে অনেক কিছুই নির্ভর করবে স্পনসরের উপর।

(খেলার জগতের আরও খবর জানতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)