Arunlal Called Wriddhiman: নিজের সিদ্ধান্ত বদলাবেন?

Arunlal Called Wriddhiman

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: বাংলা ছাড়তে চান ঋদ্ধিমান সাহা। দু’দিন আগেই জানিয়ে দিয়েছেন সে কথা। এবার ঋদ্ধিকে ধরে রাখতে আসরে নামলেন কোচ অরুনলাল (Arunlal Called Wriddhiman)। বুধবারই সিএবির কাছে ‘নো অবজেকশন সার্টিফিকেট’ চান উইকেট কিপার-ব্যাটসম্যান। এর পর থেকেই ঋদ্ধিকে ধরে রাখার চেষ্টা শুরু করে সিএবি কর্তারা। কিন্তু বুধবার রাত পর্যন্ত নিজের সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন তিনি। তিনি জানিয়ে দেন, সিদ্ধান্ত বদল করবেন না। মনে করা হচ্ছে এর পরই অরুনলালের দ্বারস্থ হন সিএবি কর্তারা।

জানা গিয়েছে ঋদ্ধিমানকে বোঝানোর চেষ্টা করেছেন অরুনলাল। তাঁকে দ্বিতীয়বার ভেবে দেখার কথাও বলেছেন তিনি। তবে ঋদ্ধির ঘনিষ্ট মহলের তথ্য অনুযায়ী নিজের সিদ্ধান্ত থেকে সরবেন না তিনি। আর তাই যদি হয় তাহলে মুখ পুড়বে সিএবির। এর আগে বাংলা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল অশোক দিন্দা। সেটাও ছিল তাঁর প্রতিবাদ। এবার সেই একই পথে হাঁটলেন ঋদ্ধি।

কেন ঋদ্ধি এমন সিদ্ধান্ত নিলেন?

সোমবার রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনাল পর্বের জন্য দল বেছে নিয়েছে সিএবি। সেই দলে রাখা হয় ঋদ্ধিমান সাহাকে। রাখা হয় মহম্মদ শামিকে। দু’জনেই এই মুহূর্তে আইপিএল খেলছে। অন্যদিকে, শামি জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন। তাই জন্য তাঁর রঞ্জি ট্রফি খেলা নিয়ে সংশয় রয়েছে। বোর্ডের অনুমতি মিললে তবেই খেলতে পারবেন তিনি।

এই পর্যন্ত সব ঠিক ছিল। শামি ও সাহাকে যে বাংলা দলে রাখা হয়েছে সেটা সিএবির তরফে তাঁদের ফোন করে জানানোর কথা। কিন্তু অভিযোগ সিএবি শামিকে ফোন করে সে কথা জানালেও ঋদ্ধিমানকে কোনও ফোন করাই হয়নি। কথা না বলেই তাঁকে দলে রাখাটা ভালভাবে নেননি। তার পরই তিনি সিদ্ধান্ত নেন আর বাংলার হয়ে খেলবেন না।

অভিযোগ কেউ তাঁর বাংলার হয়ে দায়বদ্ধতা নিয়েও নাকি প্রশ্ন তুলেছেন।  এবার তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ চান ঋদ্ধি। তার পর থেকেই ঋদ্ধিকে মানানোর চেষ্টা শুরু হয়। গত কয়েকমাস ধরে রীতমতো বিতর্কে রয়েছেন তিনি। শান্ত, কম কথা বলা ছেলেটা হঠাৎই এত বিতর্কীত কী করে হয়ে উঠল সেটাই বড় প্রশ্ন। এর আগে ঝামেলায় জড়িয়েছেন সাংবাদিকের সঙ্গে। যার ফলে সেই সাংবাদিককে ব্যান করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। এবার নতুন বিতর্কে ঋদ্ধিমান সাহা।

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক)