হায়দরাবাদে গণধর্ষণ করে তরুণীকে খুন করার পরে পুড়িয়ে ফেলা হল ওই চিকিৎসকের দেহ

হায়দরাবাদে গণধর্ষণ করে তরুণীকে খুনহায়দরাবাদে গণধর্ষণ করে তরুণীকে খুন

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: হায়দরাবাদে গণধর্ষণ করে তরুণীকে খুন করার পরে পুড়িয়ে ফেলা হল দেহ। তেলঙ্গনার ওই তরুণী পেশায় পশু-চিকিৎসক ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে হায়দরাবাদের শাদনগর থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরে চতনপল্লির এক সেতুর কাছ থেকে তাঁর দেহ পোড়া দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তেলঙ্গানা পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় মহম্মদ আরিফ (২৬), জল্লু শিবা (২০), জল্লু নবীন (২০) এবং চিন্তকুন্ত চেন্নাকেশভুলু (২০) নামে চার জনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের সকলেরই বাড়ি নারায়ণপেট জেলায়।

এমন আরও খবর পড়তে ক্লিক করুন

তেলঙ্গানার কল্লুরু গ্রামের একটি পশু হাসপাতালে কাজ করতেন বছর ছাব্বিশের ওই তরুণী। গত বুধবার রাতে এক চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন। তাঁর একটি স্কুটি ছিল। সেটি একটি টোল প্লাজায় রেখে দিয়েছিলেন তিনি। এর পর ট্যাক্সি নিয়ে ওই চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করতে যান। ফিরে এসে দেখেন, তাঁর স্কুটির চাকা হাওয়া নেই। তখন সওয়া ৯টা। এর পর দুই ট্রাকচালক তাঁকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। এই পর্যন্ত গোটটাই তিনি ফোন করে তাঁর বোনকে বলেন বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছে।

বোনকে ওই চিকিৎসক এ-ও বলেন যে, তাঁর খুব ভয় করছে। বোন তখন তাঁকে স্কুটি রেখে ট্যাক্সি ধরেই বাড়ি ফিরে আসতে বলেন। এর পর আর দিদির সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি ওই চিকিৎসকের বোন। তাঁর মোবাইল সুইচড অফ বলতে থাকে।

ওই টোল প্লাজার কাছ থেকে নিহত তরুণীর পোশাক, জুতো এবং কয়েকটি মদের বোতল উদ্ধার করেছে পুলিশ। টোল প্লাজার সিসি টিভির ফুটেজেও দেখা গিয়েছে, একটি মোটরবাইকের উপরে বসে রয়েছেন ওই তরুণী। রাজ্য পুলিশের ডিজি মহেন্দ্র রেড্ডি জানিয়েছেন, দোষীরা কেউ রেহাই পাবে না।


(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)