রক্তাক্ত কাশ্মীর, ওষুধের ব্যবসায়ীর পর এবার জঙ্গিদের শিকার শিক্ষক

রক্তাক্ত কাশ্মীর

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: রক্তাক্ত কাশ্মীর জুড়ে শুধুই সাধারণ মানুষরা জঙ্গি হামলার শিকার হচ্ছেন বেশ কয়েকদিন ধরে। প্রাথমিকভাবে তা স্বাভাবিক দুর্ঘটনা বলে মনে হলেও এখন সেটা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। তাহলে কি এবার জঙ্গিদের লক্ষ্য সাধারণ মানুষ। সাধারণ মানুষের উপর হামলা চালিয়ে তাঁদের শান্তি বিঘ্নিত করে দিতে পারলেই নড়েচড়ে বসবে প্রশাসন? এই ভাবনা থেকেই কি তাহলে তারা একের পর এক সাধারণ মানুষকে তাদের শিকার বানাচ্ছে? এদিন স্থানীয় একটি স্কুলে ঢুকে এলোপাথাড়ি গুনি চালায় জঙ্গিরা। তাতেই আহত হন স্কুলের প্রিন্সিপাল ও এক শিক্ষক।

শ্রীনগরের সরকারি বয়েজ হাইস্কুলের ঘটনা। সেই সময় স্কুলে কোনও ছাত্র ছিল না। এখনও কোভিডের কারণে স্কুল পুরোপুরি শুরু না হলেও শিক্ষকরা নিয়মিত স্কুল যান প্রশাসনিক কাজের কারণে। ছাত্রদের এখনও অনলাইন ক্লাস চলছে। না হলে আরও বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত বলে মনে করা হচ্ছে। গত ৫ দিনে কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবারই তিন জনের মৃত্যু হয়েছিল। জমউ-কাশ্মীর পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, এই হামলার পিছনে রয়েছে দ্য রেসিস্টেন্ট ফ্রন্ট (টিআরএফ)।

যে দুই শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের মধ্যে একজন দীপক চাঁদ হিন্দু। তিনি স্কুলের প্রিন্সিপাল ছিলেন। আর এক শিক্ষক সুপুন্দর কৌর শিখ। এক স্কুল শিক্ষক জানিয়েছেন, বন্দুকধারী এক ব্যক্তি সকালে স্কুলে ঢুকে শিক্ষকরদের পরিচয়পত্র চাইতে শুরু করে। তা দেখার পরই এই দু’জনের উপর গুলি চালিয়ে বেরিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটে সকাল ১১.৪৫ মিনিট নাগাদ। আপাতত এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ। তল্লাশি চলছে জঙ্গির। মনে করা হচ্ছে ওই এলাকাতেই লুকিয়ে থাকতে পারে সে।

যে গোষ্ঠী এই ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের কাজ চলে করাচি থেকে। বর্ডারে এদের তৎপড়তা বেড়েছে বলে জানা গিয়েছে। দ্রুত তাদের সামনে নিয়ে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে পুলিশ। যাঁদের মারা হয়েছে তাঁরা কোনও গোষ্ঠীর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না বলেই জানিয়েছে পুলিশ। স্থানীয় প্রশাসন স্থানীয় মানুষদের নিরাপত্তা নিয়ে সংশয়ে রয়েছে বলে জানিয়েছে। মঙ্গলবার অতিপরিচিত ব্যবসায়ী মাখন লাল বিনদ্রোকে সামনে থেকে গুলি করে খুন করে জঙ্গিরা তাঁর দোকানের মধ্যেই সন্ধে ৭টা নাগাদ। সেই খুনিরাও এখনও অধরা। এ ছাড়া আরও দুই রাস্তায়খাবার বিক্রি করা দুই ব্যক্তিকে খুন করা হয়। তাঁরা কেউই কাশ্মীরের বাসিন্দা ছিলেন না। একজনের পরিচয় জানা গিয়েছে বীরেন্দ্র পাসোয়ান এসেছিলেন বিহারের ভাগলপুর থেকে।

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)