দেশ ভাগ হয়েছিল ১৪ অগস্ট, পালন হবে সেই যন্ত্রণার দিন: নরেন্দ্র মোদী

দেশ ভাগ

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: দেশ ভাগ ভারতের ইতিহাসে এক যন্ত্রণার অধ্যায়। ১৫ অগস্ট ভারত স্বাধীন হয়েছিল ব্রিটিশদের হাত থেকে। ঠিক তার আগের দিন ভাগ হয়ে গিয়েছিল দেশ। তারিখটা ১৪ অগস্ট। এতদিন সেই দিন পালন করার কথা ভাবা হয়নি কখনও। কিন্তু ভারতের ৭৫তম স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়ে দিলেন, দেশ ভাগ-এর ইতিহাস ভোলার হয়, তাই পালন হবে এই দিন। বিভাজন বিভীষিকা স্বরণ দিবস (Partition Horrors Remembrance Day)। শনিবার টুইট করে এই কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এই দিন পালন হবে সেই সব মানুষদের বলিদানকে কুর্নিশ করে যাঁরা সেই সময় গৃহহারা হয়েছিলেন, বলিদান দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী টুইটে লেখেন, ‘‘দেশ ভাগ-এর যন্ত্রণা কখনও ভোলার নয়।  আমাদের লক্ষ্য লক্ষ্য ভাই-বোনেরা তাঁদের জায়গা হারিয়েছে, জীবন হারিয়েছে অকারণ হিংসার জন্য। আমাদের মানুষদের লড়াই ও বলিদানের স্মৃতিতেই ১৪ অগস্টকে পার্টিসন হরর রিমেমবারেন্স ডে-হিসেবে পালন করা হবে।’’ ১৪ অগস্ট পাকিস্তান স্বাধীনতা দিবস পালন করে। সেই দিনকেই যন্ত্রণার দিন হিসেবে পালন করতে চলেছে বর্তমান সরকার।

আরও একটি টুইটে তিনি লেখেন, ‘‘এই দিনটি আমাদের মনে করাতে থাকবে সমাজ থেকে বিষ, অশান্তি এবং সামাজিক ভেদাভেদ সরিয়ে ফেলতে হবে এবং মানুষকে এক সুঁতোয় বাঁধতে হবে। সামাজিক সম্প্রীতি ও মানুষের ক্ষমতায়নকে গুরুত্ব দিতে হবে।’’ দেশ ভাগের স্মৃতি এক রক্তাক্ত ইতিহাস। হিসেব বলছে ১০ লাখ মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল। কিন্তু হিসেবের বাইরের সংখ্যাটা কারও জানা নেই। সঙ্গে লুঠপাট, ধর্ষণ, খুন, অপহরণ—কী না হয়েছে। কেউ পায়ে হেঁটে, কেউ কোনও পথ চলতি গাড়িকে থামিয়ে উঠে পড়েছিল। ট্রেনের ছবি তো এই প্রজন্মও দেখেছে। দেশ বদলেছে কোটি কোটি মানুষের। কেউ হারিয়ে গিয়েছে মাঝ পথেই।

এদিন প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি টুইট করে একই বার্তা দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। তিনি লেখেন, ‘‘দেশ ভাগের সময় হিংসা ও ঘৃণার কারণে আমাদের অসংখ্য ভাই-বোনদের ত্যাগ, লড়াই ও বলিদানের স্মরণে মোদীজী ১৪ অগস্টকে বিভাজন বিভীষিকা স্মৃতি দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্তের জন্য মোদীজীকে অভিনন্দন।’’

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)