ফের রক্তাক্ত কাশ্মীর, সন্ত্রাসবাদী হামলায় শহীদ দুই জওয়ান

ফের রক্তাক্ত কাশ্মীর

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: ফের রক্তাক্ত কাশ্মীর আর তার জেরে শহীদ হলেন দুই জওয়ান। এই হামলার মুখে পড়তে মৃত্যু হয়েছে দু’জন সাধারণ মানুষের। বেশ কিছুদিন জম্মু-কাশ্মীরের পরিবেশ শান্তই ছিল। কোভিডের মধ্যে গৃহবন্দি থাকার ফলে শান্তিতেই কাটছিল ভূস্বর্গের জীবন-যাপন। কিন্তু পুরনো আতঙ্কের স্মৃতি ফিরিয়ে শনিবার দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপোরের আরামপোরায় হামলা চালায় জঙ্গিরা। হামলা চালানো হয় জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ এবং সিআরপিএফ-এর একটি চেকপোস্টে। হামলা চালায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈবা।

জঙ্গিদের অতর্কীত হামলায় কিছুটা ধাক্কা খান জওয়ানরা। প্রস্তুত ছিলেন না তাঁরা। আর তাতেই ঘটনা স্থলে মৃত্যু হয় দুই পুলিশকর্মীর। পাশাপাশি এই হামলার মধ্যে পড়ে মৃত্যু হয় দু’জন সাধারণ মানুষের। এখড়ও পর্যন্ত যা খবর মৃত্যু হয়েছে চার জনের। আহত হয়েছেন দু’জন নিরাপত্তা আধিকারিক।

যদিও যা খবর তাতে সেই সময় ওই এলাকায় নাকা চেকিং চালাচ্ছিল পুলিশ ও সিআরপিএফ-এর যৌথ বাহিনী। তখনই তাঁদের লক্ষ্য করে উড়ে আসে গ্রেনেড। গ্রেনেড ছুঁড়েই ওই এলাকা থেকে পালিয়ে যায় লস্করের জঙ্গিরা। গ্রেনেড হামলার ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে উঠতেই গায়েব হয়ে যায় আক্রমণকারীরা। তবে পুলিশের সন্দেহ এলাকা ছেড়ে বাইরে যেতে পারেনি জঙ্গিরা। যেভাবেই হোক জঙ্গিদের ধরতে চাইছে পুলিশ।

সন্দেহ করা হচ্ছে ওখানেই কোথাও গা ঢাকা দিয়েছে জঙ্গিরা। তাদের খোঁজে শুরু হয়েছে চিরুণি তল্লাশি। সোপোরের ওই এলাকায় মোতায়ন করা হয়েছে প্রচুর পরিমানে নিরাপত্তা বাহিনী। যাতে কোনওভাবে এলাকা ছাড়তে না পারে জঙ্গিরা। কাশ্মীরের আইজি বিজয় কুমার জানিয়েছেন, এই হামলার পিছনে লস্কর-ই-তৈবারই হাত রয়েছে। তবে তারা কারা এবং কী উদ্দেশে সেখানে ঘাঁটি গেড়েছিল তা জানা যায়নি।

এদিকে গ্রেনেড হামলায় দুই জওয়ানের পাশাপাশি আর যে দু’জন সাধারণ মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে তাঁদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।  গত মাসে অনন্তনাগে এই সংগঠনেরই তিন কুখ্যাত জঙ্গিকে মারতে সক্ষম হয় স্থানীয় পুলিশ ও বাহিনীর জওয়ানরা। তিন জঙ্গির মৃত্যুতে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল স্থানীয় প্রশাসন। তাঁদের বড়সড় নাশকতার ছক ছিল বলেও জানা গিয়েছিল সেই সময়। তবে এলাকা থেকে যে জঙ্গিদের স্বমূলে উৎপাট করা যায়নি তা প্রমান করে দিল এদিনের হামলা।

(প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)