দেশের প্রথম কোভিড-আক্রান্ত ফের করোনা পজিটিভ, দেড় বছর পর

দেশের প্রথম কোভিড-আক্রান্ত ফের করোনা পজিটিভ

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: দেশের প্রথম কোভিড-আক্রান্ত ফের করোনা পজিটিভ বলে জানাল কেরল সরকার। ২০২০-র জানুয়ারিতে চিনের উহান প্রদেশ থেকে দেশে ফিরেছিলেন তিনি। করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর তাঁর কোভিড পরীক্ষা করানো হয়। ৩০ জানুয়ারি ওই তরুণীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তার কিছু দিনের মধ্যেই সুস্থ হয়ে ওঠেন। কিন্তু মঙ্গলবার ফের তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তবে আপাতত সুস্থই আছেন ওই তরুণী। তবে দেড় বছর বাদে ফের করোনা আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

কেরলের ত্রিশূর জেলার বাসিন্দা ওই তরুণী উহান বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাক্তারি পড়তেন। করোনার প্রকোপ যখন বাড়ছে উহানে সেই সময় তিনি বিমানে দেশে ফিরে আসেন। ২০২০-র ১৫ জানুয়ারির পর যাঁরা দেশে ফিরেছিলেন, তাঁদের বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দেয় সেই সময় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। সেই নির্দেশ জানতে পেরে ত্রিশূর জেলা স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ওই তরুণী। কিন্তু কোনও উপসর্গ না থাকায় তাঁকে বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার কথা বলা হয়। কিন্তু ওই বছরের ২৭ ডিসেম্বর করোনার উপসর্গ দেখা যায় ওই তরুণীর। এর পর ফের তিনি যোগাযোগ করেন জেলা স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে। তাঁকে সঙ্গে সঙ্গেই জেলা হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে রাখা হয় পর্যবেক্ষণে। কিছু দিনের মধ্যেই তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেন।

এর পর থেকে কেরলেই ছিলেন ওই তরুণী। ত্রিশূরের জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক রীনা কে জে জানিয়েছেন, সম্প্রতি ওই তরুণী পড়াশোনার কারণে দিল্লি যাবেন বলে ঠিক করেন। সে কারণেই ফের করোনা পরীক্ষা করান। মঙ্গলবার তাঁর আরটি-পিসিআর পজিটিভ এসেছে। ওই চিকিৎসকের কথায়, ‘‘তরুণীর কোনও উপসর্গ নেই। তিনি বাড়িতেই আইসোলেশনে আছেন। শারীরিক কোনও সমস্যাও নেই। উনি দিল্লি যাবেন বলে টেস্ট করিয়েছিলেন। রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।’’

অন্য দিকে, দেশের দৈনিক করোনাভাইরাসের সংক্রমণে বড়সড় পতন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৯০৬ জন। দেশে দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর থেকে এই প্রথমবার এতটা কমল দৈনিক সংক্রমণ। কোভিডে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৯ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। সংক্রমণ কমার সঙ্গে সঙ্গে দেশে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও কমছিল। গত কয়েক দিন ধরেই তা হাজারের নীচে রয়েছে। কিন্তু মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রকাশিত বুলেটিনে অনুসারে, দৈনিক মৃত্যু ২ হাজার ছাড়িয়েছে। মঙ্গলবার দেশে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ২০ জনের। মহারাষ্ট্র এবং কেরলে এক দিনে মৃত্যু ১০০-র বেশি রয়েছে। বাকি সব রাজ্যেই তা ১০০-র কম। কিন্তু মধ্যপ্রদেশে হঠাৎ দৈনিক মৃত্যু পৌঁছেছে ১৫০০-র কাছাকাছি। ওই রাজ্যে এ রকম বাড়বাড়ন্তের জন্যই দেশের দৈনিক মৃত্যু ২ হাজার ছাড়িয়েছে। প্রাথমিক অনুমান, কোভিডে পুরনো মৃত্যুর হিসাবে সমতা আনতেই হঠাৎ মৃতের সংখ্যা বেড়েছে সে রাজ্যে।

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)