কৃষি বিল নিয়ে চূড়ান্ত কৃষক-ক্ষোভ, দেশ জুড়ে মোদীর সমালোচনায় সরব চাষিরা

কৃষি বিল নিয়ে চূড়ান্ত কৃষক-ক্ষোভ

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: কৃষি বিল নিয়ে চূড়ান্ত কৃষক-ক্ষোভ গোটা দেশ জুড়ে। ক্ষোভের হাওয়া সবচেয়ে বেশি পঞ্জাব-হরিয়ানায়। কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধেও সরব হয়েছেন গোটা দেশের চাষিদের একটা বড় অংশ।

সংসদে পাশ হওয়া কৃষি সংক্রান্ত তিনটি বিল নিয়ে ইতিমধ্যেই উত্তাল হয়ে উঠেছে কৃষক মহল। কৃষি বিলের বিরুদ্ধে পঞ্জাবে ‘চাক্কা জ্যাম’, ‘রেল রোকো’ কর্মসূচি পালন করেছেন কৃষকেরা। আন্দোলনে অংশ নিয়েছে শিরোমণি অকালি দল। শনিবার সেই ডাক ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার থেকে চলছে রেল রোকো। প্রথমে ঠিক হয়েছিল, আজ, শনিবার পর্যন্ত চলবে কর্মসূচি। কিন্তু এ দিন সংগঠনের সভাপতি সতনাম সিংহ পান্নু জানিয়ে দেন, ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রেল রোকো কর্মসূচির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবার দেশের কৃষক সংগঠনগুলির ডাকা ভারত বন্ধের দিনে বিক্ষোভ, আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ল দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। পঞ্জাব, হরিয়ানা ছাড়াও কৃষকেরা বিক্ষোভ দেখিয়েছেন উত্তরপ্রদেশ, বিহার, কর্নাটক, মহারাষ্ট্র, পশ্চিমবঙ্গ-সহ বিভিন্ন রাজ্যে। কোথাও রাস্তা অবরোধ করে। কোথাও রেল অবরোধ করে। কোথাও ধর্না, মিছিল করে।


দেশের আরও খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

এরই মধ্যে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অভিযোগ করেন, কৃষি এবং শ্রম বিল নিয়ে বিরোধীরা মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। মোদীর দাবি, তাঁর সরকার মান্ডির পাশাপাশি বাজারে কৃষিপণ্য বিক্রির সুবিধা করে দেওয়ায় মধ্যস্বত্বভোগীদের স্বার্থে চাষিদের বিভ্রান্ত করছেন বিরোধীরা। বিরোধীরা যদিও মোদীর অভিযোগ খণ্ডন করেছে। একই রকম ভাবে আন্দোলনরত কৃষকদের দাবি, বিরোধীরা যে মোটেও তাদের বিভ্রান্ত করছে না, সেটা স্পষ্ট।

কিসান মজদুর সংঘর্ষ সমিতির পঞ্জাব রাজ্য সম্পাদক সরওয়ান সিং পান্ধের এ দিন মোদীর অভিযোগ প্রসঙ্গে মুখ খোলেন। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের বিভ্রান্ত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিরোধীদের দোষ দিয়েছেন। এটা ঠিক নয়। আমরা অধ্যাদেশ খুঁটিয়ে পড়েছি। কর্পোরেট সংস্থাগুলে প্রধানমন্ত্রীকে এই বিল নিয়ে আসার জন্য জোর করেছে। আমরা গোটা দেশের কৃষক মহলের সমর্থন পাচ্ছি। এটা সাধারণ মানুষের অনেক বড় একটা আন্দোলন। প্রধানমন্ত্রীকে এই বিল প্রত্যাহার করতেই হবে। মাঠে এই আইন সরকার প্রয়োগ করতে পারবে না।’’

কৃষি বিল নিয়ে চূড়ান্ত কৃষক-ক্ষোভ, এ নিয়ে কংগ্রেস-সহ সব বিরোধী দল কেন্দ্রীয় সরকারের বিরোধিতা করছে। কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী বলেন, চাষিকে স্বাধীনতা দেওয়ার নামে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির শাসন ফেরাতে চায় মোদী সরকার। তড়িঘড়ির জিএসটি ছোট-মাঝারি শিল্পের কোমর ভেঙে দেওয়ার পরে, এ বার চাষিদের পরাধীন করবে নতুন কৃষি আইন।


(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)