দিল্লিতে কোর্টের ভিতরেই গ্যাংস্টার খুন, নিহত আরও অন্তত তিন

দিল্লিতে কোর্টের ভিতরেই গ্যাংস্টার খুন

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: দিল্লিতে কোর্টের ভিতরেই গ্যাংস্টার খুন, উত্তর দিল্লির রোহিণী আদালতের ঘটনা। দুই গ্যাংয়ের লড়াইয়ে জেরে মারা গেলেন অন্তত ৪ জন। তার মধ্যে নামী গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র গোগীও রয়েছে। ঘটনার যে ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে, তাতে গুলির শব্দ এবং পুলিশ-আইনজীবীদের হুড়োহুড়ি দেখা গিয়েছে। জিতেন্দ্রকে তার প্রতিপক্ষ শিবিরের লোকজনই খুন করেছে বলে প্রাথমিক ভাবে পুলিশের অনুমান। গোগীকে মারার জন্য আততায়ীরা আইনজীবীর পোশাক পরেই আদালেতর ভিতরে ঢুকেছিল। আততায়ীদের তিন জনকে আদালতের নিরাপত্তরক্ষীরা গুলি করে মারে। দিল্লির পুলিশ কমিশনার রাকেশ আস্থানা বলেন, ‘‘জিতেন্দ্রকে লক্ষ্য করে প্রতিপক্ষের দুই আততায়ী কোর্টের ভিতরেই গুলি চালায়। পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে তৎপর হয়ে দুই আততায়ী লক্ষ্য করে গুলি চালায়।’’ পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, গোগীর প্রতিপক্ষ টিল্লু গ্যাংই এই কাজ করেছে।

দিল্লি পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গোগী এক জন কুখ্যাত দুষ্কৃতী। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। গত এপ্রিলেই গোগীকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল। সেই রকম একটি মামলাতে উত্তর দিল্লির রোহিণী আদালতে তাকে নিয়ে আসা হয়েছিল, হাজির করানোর জন্য। তখনই টিল্লু গ্যাংয়ের দুষ্কৃতীরা তার উপর গুলি চালায় বলে জানা গিয়েছে। দুষ্কৃতীরা আইনজীবীদের পোশাক পরেই আদালত চত্বরে ঢুকে পড়েছিল বলে জানিয়েছে দিল্লি পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, গোগী এবং টিল্লুর গ্যাংয়ের মধ্যে বিবাদ দীর্ঘ দিনের। গত কয়েক বছরের তাদের লড়াইয়ের জেরে ২৫ জনেরও বেশি লোক মারা গিয়েছে। গোগীর অপরাধ-জীবন প্রায় ১ দশকের। তার বাবা মারা যায় ২০১০ সালে। বাবার মৃত্যুর পরেই গোগীর অপরাধ জগতে প্রবেশ। প্রথমে প্রোমোটারির ব্যবসা। কিন্তু অপরাধ জগতে প্রবেশ করেই ওই বছরের সেপ্টেম্বরে প্রবীণ নামের এক ব্যক্তিকে গুলি করে খুন করে গোগী। সে বছরেরই অক্টোবরে দিল্লির শ্রদ্ধানন্দ কলেজের নির্বাচনে গোগী এবং তাঁর সহযোগীরা সন্দীপ এবং রবিন্দ্র নামের দুই যুবককে খুন করে। তখন তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর পর টাকা রোজগারের জন্য নতুন গ্যাং তৈরি করে গোগী।

দিল্লিতে কোর্টের ভিতরেই গ্যাংস্টার খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে। আচমকাই আদালতের মধ্যে গুলি চলে। পাল্টা গুলি চালায় পুলিশও। সেই গুলিতে দুষ্কৃতী দলের দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এ দিন আদালত চত্বরে ৩৫ থেকে ৪০ রাউন্ড গুলি চলেছে বলে পুলিশের দাবি। রোহিণীর ডেপুটি পুলিশ কমিশনার প্রণব তয়াল বলেন, ‘‘আইনজীবীর পোশাক পরে আততায়ীরা আদালতের মধ্যেই গোগীর উপর গুলি চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি চালিয়েছে।’’


প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)