৮ রাজ্যের আর ফ্যাক্টর ভাবাচ্ছে কেন্দ্রকে, অতিমারি এখনও চলে যায়নি

৮ রাজ্যের আর ফ্যাক্টর ভাবাচ্ছে

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: ৮ রাজ্যের আর ফ্যাক্টর ভাবাচ্ছে সরকারকে। এদিন এক বার্তায় এমনই তথ্য উঠে এসেছে।  আর সেটাকে বড় সমস্যা বলে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। ডেল্টার প্রকোপের কারণে দ্বিতীয় ঢেউ যে এখনও চলে যায়নি তা আরও একবার প্রকাশ্যে আনার চেষ্টা করা হয়েছে। সরকারের কোভিড টাস্ক ফোর্সের মুখ্য আধিকারিক ভিকে পল জানিয়েছেন,  ৪৪টি জেলার কোভিড পরিস্থিতি জানান দিচ্ছে দ্বিতীয় ঢেউ এখনও শেষ হয়ে যায়নি। সরকারি তথ্য অনুযায়ী গত চার সপ্তাহ ধরে ১৮টি জেলায় সংক্রমণ ক্রমগত ঊর্ধ্বমুখীই রয়েছে। ডঃ পল বলেন, ‘‘ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট একটা বড় সমস্যা হয়ে রয়ে গিয়েছে। অতিমারি এখনও চলছে এবং দ্বিতীয় ঢেউ আমাদের দেশে রয়েছে।’’

তিনি আর ফ্যাক্টর নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। যার মানে ভাইরাসের রিপ্রোডাক্টিভ রেট। যা বুঝিয়ে দিচ্ছে কত দ্রুত এটা ছড়িয়ে পড়তে পারে। ডঃ পল বলেন, ‘‘এটা মনে রাখতে হবে আর নম্বর ০.৬-এর নিচে থাকাটা বাধ্যতামূলক। যদি তা ১-এর উপর চলে যায় তার মানে বড় সমস্যা রয়েছে এবং ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে চাইছে।’’

তিনি এও জানিয়েছেন, গত সপ্তাহে যে সব জেলায় কোভিড সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী ছিল তা এই সপ্তাহে নিন্মমুখী হয়েছে। যে সব জেলায় অত্যধিক পরিমাণে পজিটিভিটি রেট বেশি ছিল সেখানেও কমছে। কিন্তু তাতে স্বস্তির কিছু নেই কারণ অন্য রাজ্যের জেলাগুলি সংক্রমণে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে। যে সব জেলার আর ফ্যাক্টর ১-এর উপর রয়েছে সেগুলি হল, হিমাচল প্রদেশ, জম্মু-কাশ্মীর, লক্ষ্মদ্বীপ, তামিলনাড়ু, মিজোরাম, কর্নাটক, পন্ডিচেরি ও কেরালা।

শুধু অন্ধ্রপ্রদেশ ও মহারাষ্টের ক্ষেত্রে নিম্নমুখী ট্রেন্ড লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গ, নাগাল্যান্ড, হরিয়ানা, গোয়া, দিল্লি ও ঝাড়খণ্ডে আর ফ্যাক্টর দাঁড়িয়ে আছে ১-এ। তার মানে রীতিমতো ডেঞ্জার লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছে এই রাজ্যগুলো। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লাভ আগরওয়াল জানিয়েছেন, যেখানে আর নম্বর ১-এর উপরে রয়েছে সেখানে নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে।

তিনি জানিয়েছেন, আমেরিকা, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের আর নম্বরের গড় ১.২। তার মানে একজন সংক্রমিত মানুষ একাধিক মানুষকে সংক্রমিত করতে পারেন। যেখানে আর ২.০ সেখানে একজন সংক্রমিত গড়ে ২ জনকে সংক্রমিত করতে পারে। সেই দু’জন আরও দু’জন করে সংক্রমিত করতে পারেন। যার ফলে গড় গিয়ে দাঁড়াচ্ছে ৪-এ।

যতক্ষণ না আর ফ্যাক্টর ১-এর নিচে নামবে ততক্ষণ বলা যাবে সংক্রমণ কমেছে। তার নিচে নামলে বলা যাবে ভাইরাস তার সংক্রমিত করার ক্ষমতা হারিয়েছে কারণ তা অনেক মানুষকে সংক্রমিত করছে না। এবং তা ছড়িয়ে পড়ছে না। এদিন ভারতে নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছে ৩০,৫৪৯। গতকালের তুলনায় একধাক্কায় অনেকটাই কমেছে। সোমবার ছিল ৪০,১৩৪। ৪২২ জন মারা গিয়েছেন গত ২৪ ঘণ্টায়।

(প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)