‘হটস্পট’ চিহ্নিত করে ‘কমপ্লিট লকডাউন’ রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গায়

‘হটস্পট’ চিহ্নিত করে ‘কমপ্লিট লকডাউন’ রাজ্যের‘হটস্পট’ চিহ্নিত করে ‘কমপ্লিট লকডাউন’ রাজ্যের

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: ‘হটস্পট’ চিহ্নিত করে ‘কমপ্লিট লকডাউন’ রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গায়। শুক্রবার নবান্নে এমনটাই জানালেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিংহ। তিনি জানান, রাজ্যে করোনা সংক্রমণ ঘটেছে মূলত ৯-১০টি জায়গায়। সেই জায়গাগুলিতে আরও নজরদারি চালানো হবে কড়া ভাবে।

নবান্ন সূত্রের খবর, উত্তরবঙ্গের একটি এবং কলকাতা, হাওড়া, নদিয়া, উত্তর ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুরের কয়েকটি জায়গা এর আওতায় পড়ছে। সম্পূর্ণ ‘লকডাউন’ প্রসঙ্গে মুখ্যসচিব বলেন, ‘‘মানুষের অসুবিধা হবে। কিন্তু আমাদের আর কোনও উপায় নেই। রোগ যাতে ছড়িয়ে না-পড়ে, সেই জন্য চিহ্নিত এলাকাগুলিতে কাউকে বেরোতে দেওয়া হবে না। কেউ ওই এলাকায় ঢুকতে পারবেন না।’’


করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সব খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন

নবান্ন সূত্রের খবর, আপাতত অন্তত ১৪ দিন এই ব্যবস্থা বহাল থাকবে। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন বাসিন্দাদের প্রয়োজনমতো সব সাহায্য করবে।

মুখ্যসচিব জানান, দেখা যাচ্ছে, ১১টি পরিবার থেকেই ৬০টির বেশি কোভিড সংক্রমণ হয়েছে। কালিম্পং, হলদিয়া, এগরা, হাওড়া, কলকাতায় দেখা গিয়েছে, এক জনের সংক্রমণ থেকে তা দ্রুত প্রতিবেশী বা পরিবারে ছড়িয়ে গিয়েছে। ফলে পজ়িটিভ করোনা সংক্রমণ দেখেই ‘হটস্পট’ বাছাই করা হচ্ছে। তিনি আরও জানান, স্বাস্থ্য দফতর চার- পাঁচটি স্তরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে তা নির্ধারণ করেছে।

কোনও একটি গ্রামে সংক্রমণ ছড়াতে শুরু করলে সেটি ‘হটস্পট’। গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাটি হবে ‘ক্লাস্টার’। সম্পূর্ণ লকডাউনে এই দু’ধরনের এলাকাতেই মানুষের মেলামেশায় নিষেধাজ্ঞা থাকছে।


(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)