রাজ্যে ১৫ দিনের লকডাউন, কড়াকড়ি করা হল অনেক কিছুতে

রাজ্যে ১৫ দিনের লকডাউন

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: রাজ্যে ১৫ দিনের লকডাউন ঘোষণা করে দিল রাজ্য সরকার। জরুরী পরিষেবা বাদ দিয়ে সব দিকে করা হল কড়াকড়ি। রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন, রাজ্যের চিকিৎসক থেকে সাধারণ মানুষ। লকডাউন করে কঠিন ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠছে মুম্বই। দিল্লিও অনেকটাই সামলে উঠছে। সেই অবস্থায় একই পথে হাঁটলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। শনিবার সকালেই ঘোষণা করে দেওয়া হল রবিবার থেকে রাজ্যে বন্ধ করা হচ্ছে অনেক সার্ভিস। শুধু খোলা থাকবে জরুরী সার্ভিস তাও একটা নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে।

রবিবার থেকেই রাজ্যে শুরু হয়ে যাচ্ছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের লকডাউন। আপাতত ৩০ মে পর্যন্ত। বন্ধ করা হল সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি দফতর। লোকাল ট্রেন আগেই বন্ধ করা হয়েছিল, তার সময়সীমা বাড়ল। বাস ও মেট্রো চলছিল বরং ভিন সামলাতে বাসের পরিমাণ বাড়ানোর কথাও বলা হয়েছিল কিছুদিন আগে কিন্তু এবার এই দুটো যান চলাচলও বন্ধ করা হল।  বন্ধ রাখা হচ্ছে ফেরি সার্ভিস।

ট্যাক্সি এবং অটো তখনই চলবে যখন সেটা জরুরী পরিষেবার জন্য ব্যবহার করা হবে। বের করা যাবে না ব্যাক্তিগত যানও। বন্ধ থাকবে স্কুল, কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এদিন নবান্ন থেকে রাজ্যে ১৫ দিনের লকডাউনের কথা ঘোষণা করেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এও জানিয়ে দেন, নিয়ম যে ভাঙবে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত গোটা রাজ্য বন্ধ থাকবে, কারণ অতীতে দেখা গিয়েছে রাতে অনেকেই রাস্তায় বেড়িয়ে পড়ছিলেন। পুলিশকেও কড়া নজরদারির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

যা যা বন্ধ থাকছে, সরকারি-বেসরকারি অফিস, শপিং মল, স্পা, সিনেমা হল, শরীরচর্চা কেন্দ্র, সুইমিং পুল, ট্রেন-বাস-ফেরি চলাল, হোটেল, রেস্টুরেন্ট, ধর্মীয় ও রাজনৈতিক সমাবেশ। কমানো হল বাজারের সময়সীমা। আগে দু’বেলা খোলা রাখার নির্দেশ থাকলেও রবিবার থেকে শুধু সকাল ৭-১০ খোলা থাকবে বাজার। খোলা থাকবে অনলাইন পরিষেবা। ব্যাঙ্ক খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে ২টো পর্যন্ত। এই একই সময়েই খোলা থাকবে এটিএমও। মিষ্টির দোকান খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

সৎকারের সময় ২০ জনের বেশি এবং বিয়েবাড়িতে ৫০-এর বেশি মানুষ জমায়েত করতে পারবেন না। জরুরী ভিত্তিতে খোলা রাখা হচ্ছে চা বাগান ও চটকল। সেখানে ৩০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া খোলা থাকছে স্বাস্থ, আদালত, বিদ্যুৎ, পানীয় জল, সংবাদ মাধ্যম, সাফাই, পেট্রোল পাম্প, গাড়ির যন্ত্রাংশ বা মেরামতির জায়গা খোলা থাকবে।

(প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)