শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা, সরলেন রাজ্য মন্ত্রিসভা থেকে

শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা পৌঁছে গেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে। বেশ কয়েকদিন ধরে শুভেন্দুর তৃণমূল থেকে সরে যাওয়া নিয়ে শোনা যাচ্ছিল নানা জল্পনা। প্রাথমিকভাবে তিনি সেই সব জল্পনাকে তিনি উড়িয়ে তৃণমূলে থাকার বার্তাই দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁকে ঘিরে সেই জল্পনা কেন থামেনি তা এদিন তাঁর ইস্তফায় প্রমান হয়ে গেল।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তিনি চিঠিতে লেখেন, ‘‘রাজ্যের মানুষের সেবা করার সুযোগ দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।’’ মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও তাঁর ইস্তফার কথা তিনি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কেও পাঠান। টুইট করে সেই কথা জানিয়েছেন স্বয়ং রাজ্যপাল।

তিনি টুইটে লেখেন, ‘‘এদিন দুপুর ১.০৫-এ মানণীয় শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফাপত্র যা মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা আমার কাছে পাঠানো হয়েছে। সাংবিধানিক দিক থেকেই পুরো বিষয়টিকে দেখা হবে।’’

শুভেন্দুর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা অনেকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল। মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগ সেই সন্দেহকে অনেকটাই মাত্রা দিল। সঙ্গে শনিবারই তিনি দিল্লি যাচ্ছেন বলেও জানা গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে বিজেপিতে যোগ দিতেই তিনি রাজধানীতে উড়ে যাবেন।

পরিকল্পনা যে চলছিলই সেটা পরিষ্কার। এর আগে তিনি এইচআরবিসি থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার সেখানে ইস্তফা দেওয়ার একদজিনের মধ্যেই রাজ্যমন্ত্রীসভা থেকে সরলেন। এর পর তিনি রাজ্যসরকারের দেওয়া নিরাপত্তা এবং পাইলট কার ছেনে দেন। তার পর পদত্যাগপত্র পাঠান।

শোনা যাচ্ছিল দলে তাঁর গুরুত্ব নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন তিনি। তিনি নিজে মুখে সেই কথা সর্ব সমক্ষে না জানালেও, তাঁর ঘনিষ্ট মহল থেকে এমনটাই উঠে এসেছে। নির্বাচনের আগে শুভেন্দুর পদত্যাগ তৃণমূলের জন্য বড় ধাক্কা।

(বাংলার আরও খবর জানতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে)

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)