পথে মমতা, নিশানায় নয়া নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি

পথে মমতাপথে মমতা

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: পথে মমতা, নিশানায় নয়া নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি। সোমবার বেলা ১টায় রেড রোডের কাছে বিআর অম্বেডকর মূর্তির পাদদেশ থেকে তৃণমূলের একটি মিছিল জোড়াসাঁকোর উদ্দেশে রওনা হয়। মমতার নেতৃত্বে ওই মিছিল জোড়াসাঁকো পৌঁছয় দুপুর দুটো নাগাদ।

মিছিল শুরুর আগে এ দিন অম্বেডকরের মূর্তিতে মাল্যদান করেন মমতা। তার পর তিনি বলেন, ‘‘অম্বেডকর ছিলেন সংবিধানের খসড়া কমিটির চেয়ারম্যান। সেই সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই আমরা আজকের ধর্মনিরপেক্ষ ভারতকে তার সার্বভৌমত্ব, তার ধর্মনিরপেক্ষতা, তার একতা— সব কিছু বজায় রেখেই আগামী দিন পথ চলব।’’


রাজ্যের আরও খবর পড়তে ক্লিক করুন

এর পরেই উপস্থিত জনতাকে শপথ পাঠ করান মমতা। সকলে মিলে বলেন, ‘‘আমরা সবাই নাগরিক। সর্ব ধর্ম সমন্বয়ই আমাদের জীবন আদর্শ। কাউকে বাংলা ছাড়তে দেব না। নিশ্চিন্তে থাকব। শান্তিতে থাকব। বাংলায় এনআরসি ও ক্যাব করতে দিচ্ছি না। দেব না। শান্তি রাখতে হবে। জয় হিন্দ। বন্দে মাতরম। জয় বাংলা।’’ এর পর কড়া পুলিশি নিরাপত্তায় মিছিল এগোয় জোড়াসাঁকোর দিকে।

জোড়াসাঁকোর মঞ্চে থেকে মমতা বলেন, ‘‘আপনারা ভোট দেন না? ভোটার তালিকায় আপনার নাম নেই? আপনার ছেলেমেয়ে স্কুলে পড়ে না? আমরা সবাই নাগরিক। আপনি আবার কিসের নাগরিকত্ব দেবেন?’’ এর পরেই তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে মমতাকে বলতে শোনা যায়, ‘‘আমরা হিংসা সমর্থন করি না। আমার কাছে প্রমাণ আছে, আপনাদের-আমাদেরই কেউ কেউ বিজেপির টাকা খেয়ে এ দিক ও দিক আগুন জ্বালাচ্ছে।’’

রাজ্য জুড়ে গত কয়েক দিন ধরে নয়া নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি ঘিরে অশান্তি ছড়িয়ে পড়েছে। সেই প্রসঙ্গের উল্লেখ করে মমতা বলেন, ‘‘কেউ দয়া করে ট্রেনে আগুন জ্বালাবেন না। অধিকাংশ ট্রেন ভারত সরকার বন্ধ করে দিয়েছে। তাতে সাধারণ মানুষের সমস্যা হচ্ছে। বার বার বলছি, ট্রেনে আগুন দেবেন না। পোস্ট অফিসে আগুন দেবেন না। রাস্তায় আগুন দেবেন না। যাঁরা আপনার পক্ষে রয়েছেন, তাঁদের সমস্যা ফেলছেন কেন?’’

মমতা এ দিন বলেন, ‘‘সিএবি প্রত্যাহার করতে হবে। যত ক্ষণ না সিএবি প্রত্যাহার করা হবে, তত ক্ষণ আমরা রাস্তায় থাকব।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘আমাদের মধ্যে কোনও ভেদাভেদ নেই। আমরা ধর্মের ভিত্তিতে ভাগাভাগি মানি না। ধর্ম যার যার আপনার, সংবিধান সবার।’’ তার পরেই মমতা গর্জে উঠে বলেন, ‘‘আমি বাংলায় আছি। আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে এনআরসি করতে হবে। সিএবি করতে হবে।’’


(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)