রেস্তরাঁয় আগুন, তখন ভিতরে প্রচুর মানুষ খাওয়া-দাওয়া করছিলে‌ন

রেস্তরাঁয় আগুন—প্রতীকী ছবি।

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: রেস্তরাঁয় আগুন ছড়িয়ে পড়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ভিতরে থাকা লোকজন। এখনও পুজোর আবেশ কাটেনি বাঙালির মধ্যে থেকে। শুক্রবারই দশমী গিয়েছে। তার পর শনি ও রবি। যে কারণে মানুষ এখনও ছুটির আমেজেই রয়েছে। তাই পুজো হয়ে গেলেও বাঙালির খাওয়া-দাওয়া চলছেই। শনিবারও তার অন্যথা হয়নি। একাদশীর দুপুরে প্রচুর মানুষ ভিড় জমিয়েছিল মল্লিকবাজারের এই রেস্তরাঁয় খেতে। তবে ভাল খবর কোনও প্রানহানি ঘটেনি। প্রথমেই বুদ্ধি করে রেস্তরাঁর ভিতরে থাকা মানুষদের বের করে আনা হয়। ততক্ষণে খবর চলে গিয়েছে দমকলে। দমকলের তিনটি ইঞ্জিন পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

শনিবার দুপুর আড়াইটে নাগাদ ওই রেস্তরাঁয় আগুন লাগে। প্রাথমিকভাবে অনুমান রান্না ঘর থেকে প্রথমে আগুন লাগে এবং পরে তা ছড়িয়ে পড়ে। রান্না ঘরেই বা কী করে আগুন লাগল তা এখনও পরিষ্কার নয়। খতিয়ে দেখা হচ্ছে পুরো বিষয়টি। কলকাতা শহরের পুরনো ও খুব বিখ্যাত ‘সিরাজ’। যেখানকার বিরিয়ানি খেতে এখনও দুরদুরান্ত থেকে মানুষ ভিড় জমায়। এদিনও তেমনটাই হয়েছিল। রান্না ঘরে যাঁরা কাজ করছিলেন তাঁদের উপর ভিড়ের জন্য অনেকটাই চাপ বেশি ছিল। এই অবস্থায় কো‌ন‌ওভাবে বিপদ চোখ এঁড়িয়ে গিয়েছিল।

ভর দুপুরে মল্লিকবাজারের মতো জলবহুল এলাকায় অগ্নিকাণ্ডে সাময়িকভাবে এলাকা স্তব্ধ হয়ে যায়। ব্যহত হয় যান চলাটল। পার্ক সার্কাস সংলগ্ন রাস্তা যান চলাচল কিছুক্ষণের জন্য স্তব্ধ হয়ে যায়। বিশেশ করে যখন দমকল আগুন নেভানোর কাজ করছিল তখন সাময়িকভাবে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে এলে আবার স্বাভাবিক হয় এলাকার রাস্তা। এত বড় রেস্তরাঁয় এভাবে আগুন লাগার ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে সেখানকার অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থাও।

প্রতিদিন নজর রাখুন জাস্ট দুনিয়ার খবরে

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)