মমতা ঘনিষ্ঠ মানিক মজুমদারের বাড়িতে সিবিআই হানা, চাইল ‘জাগো বাংলা’র হিসাব

নারদ কাণ্ডে জামিনে স্থগিতাদেশ

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: মমতা ঘনিষ্ঠ মানিক মজুমদারের বাড়িতে সিবিআই হানা। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘ দিনের সঙ্গী মানিকবাবু। গত প্রায় চার দশক ধরে তিনি সামলাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কালীঘাটের বাড়ির অফিস। পাশাপাশি তিনি তৃণমূলের দলীয় মুখপত্র ‘জাগো বাংলা’র ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের অন্যতম স্বাক্ষরকারী।

বৃহস্পতিবার মানিকবাবুর কালীঘাটের দেবনারায়ণ ব্যানার্জি রোডের বাড়িতে যান সিবিআই আধিকারিকরা। ঘণ্টা তিনেক ধরে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে সিবিআই সূত্রে খবর। তাঁর কাছ থেকে ‘জাগো বাংলা’র ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিস্তারিত তথ্যও চেয়ে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় ওই গোয়েন্দা সংস্থা।

সিবিআই সূত্রের খবর, মানিকবাবু ‘জাগো বাংলা’র ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তিন জন স্বাক্ষরকারীর মধ্যে অন্যতম। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবি বিক্রির টাকার একটি বড় অংশ ‘জাগো বাংলা’ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গিয়েছে বলে অভিযোগ। সেই সংক্রান্ত বিস্তারিত হিসাব জানতে চেয়ে এর আগে মানিক মজুমদারকে দু’বার চিঠি দিয়ে ডেকে পাঠানো হয়েছিল বলে সিবিআই সূত্য়েরে খবর। কিন্তু, অসুস্থতার কথা জানিয়ে তিনি সিবিআই দফতরে হাজিরা দেননি। সে কারণেই এ দিন সিবিআই আধিকারিকরাই তাঁর কালীঘাটের বাড়িতে গিয়ে মানিকবাবুকে জেরা করেন।

শ্রীকান্ত মোহতা গ্রেফতার, কসবার অফিস থেকে তাঁকে তুলে নিয়ে গেল সিবিআই

সিবিআইয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, এ দিন ‘জাগো বাংলা’র ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য ছাড়াও মানিকবাবুর কাছে তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের হিসাবও চেয়ে পাঠানো হয়েছে। তৃণমূলের এক বর্তমান এবং এক প্রাক্তন সাংসদও ‘জাগো বাংলা’র ওই অ্যাকাউন্টের অন্যতম স্বাক্ষরকারী। সিবিআইয়ের ওই সূত্রটির দাবি, ‘জাগো বাংলা’র হিসাব নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের সময় এ দিন মানিকবাবু মুকুল রায়ের কথা বলেন। জানান, মুখপত্রের জন্মলগ্ন থেকেই তার হিসাব রাখতেন মুকুল রায়। তৃণমূল ছেড়ে পরে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছেন মুকুল রায়। মানিকবাবুর দাবি, তিনি পরের দিকে হিসাব রাখতেন। এবং আগের হিসাবের সূত্র মিলিয়েছেন মুকুল রায় যা বলেছেন, তার উপর ভিত্তি করেই।

এর আগেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবি নিয়ে জেরার মুখে রাজ্যের বহু নেতা ও ব্যবসায়ী মুকুল রায়ের নাম করেছেন। তাঁকেও ডেকে এই প্রসঙ্গে ফের জেরা করা হতে পারে বলে সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে। ‘জাগো বাংলা’র হিসাব নিয়ে তৃণমূলের বর্তমান সর্বভারতীয় সম্পাদক সুব্রত বক্সীকে আগেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। মুখপত্রের অন্য দুই স্বাক্ষরকারী বর্তমান ও প্রাক্তন ওই দুই সাংসদকেও এর আগে জেরা করেছে কেন্দ্রীয় ওই গোয়েন্দা সংস্থা।

(রাজ্যের আরও খবর পড়তে এখানে ক্লিক করুন)