সচিন তেন্ডুলকর মনে করেন, ধোনিকে পাঁচে নামানো উচিৎ ছিল

সচিন তেন্ডুলকরপ্রাক্তন ভারত অধিনায়ক এমএস ধোনি। ছবি-বিসিসিআই।

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: সচিন তেন্ডুলকর মনে করেন, মহেন্দ্র সিং ধোনিকে অবসর নিয়ে বারবার প্রশ্ন করাটা ঠিক নয়। বলেই দিলেন, ‘‌অবসর নেবে কিনা সেটা ধোনির ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।’‌
ধোনিকে নিয়ে আরও অনেক কথাই বলেছেন মাস্টার ব্লাস্টার। যাঁরা ধোনির অবসর নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন তাঁদের উদ্দেশ্য করে বলেছেন, ‘‌কবে অবসর নেবে, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার স্বাধীনতা ধোনিকে দিতেই হবে। ভারতীয় ক্রিকেটে ওর যা অবদান তাতে এই সম্মানটুকু প্রাপ্য। অযথা জল্পনা করার মানে নেই। দেশকে ও এতকিছু দিয়েছে। ক’‌জনের কেরিয়ার এমন বলুন তো?‌’

‘লোকের সমর্থন এবং বিশ্বাসের মর্যাদা যে ও দিয়েছে, তা বোঝা যায় ধোনির পারফরমেন্সেই। লোকে এখনও বিশ্বাস করে ধোনি ম্যাচ শেষ করে আসার ক্ষমতা রাখে। বুধবারও তো ও যতক্ষণ মাঠে ছিল মনে হয়েছে ম্যাচটা আমরা জিতে যাব,’ মনে করেন সচিন।

সেমিফাইনালে ধোনিকে পাঁচে নামানো উচিত ছিল অনেকেই বলছেন। ‌শচীনও একমত। বলেছেন, ‘‌হার্দিকের জায়গায় ধোনিকে পাঁচে নামালে ফল অন্য হতেই পারত। ধোনি তখন নামলে সত্যিই কিছু করে দেখাত। এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ধোনিকে আগে পাঠালে ম্যাচের ওপর আরও আগে নিয়ন্ত্রণ নিতে পারত ভারত। জাদেজার সঙ্গে ও ক্রমাগত আলোচনা করছিল। খেলাটা তো প্রায় ধরেই ফেলেছিল। খুব বুদ্ধি করে স্ট্রাইক বদলাচ্ছিল।’‌

(খেলার আরও খবরের জন্য ক্লিক করুন এই লিঙ্কে)

এদিকে সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকরও ধোনিকে খেলা চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করলেন। বিশ্বকাপ থেকে ভারতের বিদায়ের পর তিনি টুইট করেন, ‘‌নমস্কার এমএস ধোনিজি। আজকাল প্রায়ই একটা কথা কানে আসছে। আপনি নাকি অবসর নিতে চলেছেন। দয়া করে এরকম ভাবনাচিন্তা মাথায় আনবেন না। দেশের আপনাকে দরকার। আর আমিও অনুরোধ করছি, দয়া করে এই অবসরের ভাবনা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলুন।’‌ উল্লেখ্য, এর আগে শচীন তেন্ডুলকারকেও অবসর নিতে নিষেধ করেছিলেন তিনি।

শুধু ধোনিকে নিয়ে নয়, টিম ইন্ডিয়াকেও বার্তা দিয়েছেন লতা মঙ্গেশকর। মনোবল বাড়াতে লিখেছেন, ‘‌কাল ভালে হাম জিত না পায়ে হো, লেকিন হাম হারে নেহি (‌‌বাংলায়, কাল আমরা জিততে না পারলেও, হারিনি)‌‌। গুলজার সাহেবের ক্রিকেট নিয়ে লেখা এই গানটা আমাদের টিম ইন্ডিয়াকে উৎসর্গ করছি।’‌ ‌‌

এদিকে সিওএ–এর সদস্য ডায়না এডুলজি মনে করেন, ধোনির মধ্যে এখনও ক্রিকেট বাকি আছে। বলেছেন, ‘‌গোটা টুর্নামেন্টে ধোনি যেভাবে খেলেছে তার প্রশংসাই করতে হবে। অবসর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত একমাত্র ধোনিই নিতে পারে। ওর হয়ে অন্য কেউ নয়। আরও গভীরে গিয়ে বললে, ধোনির শরীরই ওকে ইঙ্গিত দেবে ওর কী করা উচিত। তবে আমি বিশ্বাস করি, ওর মধ্যে এখনও অনেক ক্রিকেট বাকি আছে। দলের তরুণদের ধোনির পরামর্শ দরকার।’‌

Be the first to comment on "সচিন তেন্ডুলকর মনে করেন, ধোনিকে পাঁচে নামানো উচিৎ ছিল"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*