বিষাক্ত প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু কর্নাটকের

বিষাক্ত প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: বিষাক্ত প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। কর্নাটকের ওই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার কর্নাটকের চামরাজনগরের একটি মন্দিরের প্রসাদ খাওয়ার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশ কয়েক জন। পরে ১১ জনের মৃত্যু হয়। অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে প্রায় ৯০ জন ভর্তি। চিকিৎসাধীনদের মধ্যে ৩০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বেঙ্গালুরু থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে ওই মন্দিরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছিল। সে কারণে ওই দিন মন্দির চত্বরে ভিড় করেছিলেন ভক্তেরা। সেখানেই প্রসাদ খাওয়ার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ভক্তেরা। মৃতদের মধ্যে দু’টি শিশুও রয়েছে।

জন অ্যালেন চাউ কেন গিয়েছিলেন নর্থ সেন্টিনেল দ্বীপে?

এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, মন্দির চত্বরে বেশ কিছু কাকও মরে পড়ে ছিল। বিষাক্ত প্রসাদ খাওয়ার ফলেই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা। প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসকদের অনুমান, প্রসাদের মধ্যে কীটনাশক জাতীয় বিষ ছিল। তবে কী ভাবে খাবারে ওই বিষাক্ত জিনিস এল, তা জানতে ইতিমধ্যেই ওই প্রসাদের নমুনা ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে। বমি, ডায়েরিয়া ও শ্বাসকষ্টের চিকিৎসা চলছে আক্রান্তদের।

ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এখনও পর্যন্ত দু’জনকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তাদের মধ্যে এক জন গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন সদস্য। তাদের জেরা করা হচ্ছে। আরও পাঁচ অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। চামরাজনগরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী পুট্টরঙ্গা শেঠি এ দিন স্থানীয় একটি হাসপাতাল পরিদর্শনে যান।

Be the first to comment on "বিষাক্ত প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু কর্নাটকের"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*