বিসিসিআইকে লেখা চিঠিতে বিস্ফোরক মিতালী রাজ

বিস্ফোরক মিতালী রাজ

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: বিস্ফোরক মিতালী রাজ । একটা কথা অনেকদিন আগে থেকেই মনে হচ্ছিল, মিতালী রাজ চুপ করে বসে থাকার মেয়ে নন। তা হলে কেন তিনি কোনও কথা বলছেন না তাঁর বাদ পড়া নিয়ে, হরমনপ্রীতের মন্তব্য নিয়ে। মনে পড়ছিল, একবার এক সাংবাদিক তাঁকে প্রশ্ন করেছিলেন, তাঁর প্রিয় ছেলে ক্রিকেটার কে? তাঁকে মিতালী পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছিলেন এই প্রশ্নটা আপনি ছেলে ক্রিকেটারদের করতে পারবেন তো, তাঁদের প্রিয় মেয়ে ক্রিকেটারকে? মিতালীর সেই প্রতিবাদী চরিত্রকে সেই সময় সবাই কূর্নিশই করেছিল। কিন্তু যখন নিজের সঙ্গে অন্যায় হল তখন চুপ মিতালী!

সোমবারই বিসিসিআই-এর সিইও রাহু জোহুরি ও ক্রিকেট অপারেশনসের জিএম সাবা করিমের সঙ্গে দেখা করেন মিতালী, হরমনপ্রীত ও দলের ম্যানেজার ত্রুপ্তি ভট্টাচার্য। তাঁদের কথা শোনার পর রিপোর্ট তৈরি করে সিওএ-কে দেবে এই দু’জন, এমনই শোনা গিয়েছে। তবে মঙ্গল অন্য খবর সামনে চলে আসে। শোনা যায় নিজের বক্তব্য বিসিসিআইকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন মিতালী। আর সেখানেই বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন তিনি।

সব থেকে বড় অভিযোগ কোচ রমেশ পাওয়ারের দিকে। মিতালী বলেন, ‘‘যেমন ধরুন নেটে সবার ব্যাটিং দেখছেন কিন্তু আমি যখনই ব্যাটই করতে নামলাম তখনই উনি উঠে চলে গেলেন। যখন তাঁর সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছি তখন তিনি নিজের ফোনের দিকে তাকিয়ে আমাকে অবজ্ঞা করে এগিয়ে গিয়েছেন। এটা যেমন অস্বস্তির তেমনই অপমানের। কিন্তু তা স্বত্বেও আমি মাথা ঠান্ডা রেখেছিলাম।’’

মিতালী রাজ  ও তাঁর বাদ পড়া দেখে নিজের অতীত মনে পড়ে গেল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের

তা হলে শেষ পর্যন্ত মুখ খুললেন মিতালী রাজ! দীর্ঘদিন ভারতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। দলের ক্যাপ্টেন। তার পরও তাঁকে বাদ দেওয়া হল। এমন একটা ম্যাচে যেখানে টি২০ বিশ্বকাপের মঞ্চে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনাল খেলতে নামছিল ভারত। আর তাঁকে বাদ দেওয়া হল যাঁর ঝুলিতে রয়েছে সব থেকে বেশি অভিজ্ঞতা, সব থেকে বেশি টি২০ রান আর এই টুর্নামেন্টে পর পর দুটো হাফ সেঞ্চুরি। প্রশ্ন তাই অনেকগুলোই উঠছিল।

তিনি বিসিসিআইকে লিখেছেন, ‘‘ক্ষমতায় থাকা কিছু মানুষ আমাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করছেন।’’ সিওএ সদস্য ডায়না এডুলজিকে একপেশে বলার পাশাপাশি ভারতীয় মহিলা দলের কোচ রমেশ পাওয়ার বিরুদ্ধে তাঁকে ‘অপদস্ত’ করার অভিযোগও এনেছেন মিতালী।

আবারও হার, আবারও সেই ইংল্যান্ড

মিতালী লেখেন, ‘’২০ বছরের ক্রিকেট কেরিয়ারে এই প্রথম আমি হতাশায় ভেঙে পড়েছি। আমি এটা ভাবতে বাধ্য হচ্ছি যে আমার দেশের জন্য আমার দরকার নেই। কিছু মানুষ আমাকে ধ্বংস করতে চাইছে। আমার আত্মবিশ্বাস ভাঙতে চাইছে।’’ এই চিঠি মিতালী বিসিসিআই সিইও রাহুল জোহুরি ও ক্রিকেট অপারেশনসের জিএম সাবা করিমকে লিখেছেন।

মিতালী আরও বলেছেন, ‘‘আমার টি২০ ক্যাপ্টেন হরমনপ্রীত কাউরের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। ও শুধু কোচের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে। আমি আমার দেশের হয়ে বিশ্বকাপ জিততে চেয়েছিলাম। আমার এটা ভেবে খারাপ লাগছে যে আমরা একটা সুবর্ণ সুযোগ হারালাম।’’

মিতালী বলেন, ‘‘আমি সব সময় ডানা এডুলজির উপর আস্থা রেখেছি, তাঁকে সম্মান দিয়েছি। আমি কখনও ভাবিনি তিনি তাঁর  পদের ব্যবহার আমার বিরুদ্ধে এ ভাবে করবেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজে টুর্নামেন্ট চলাকালীন কী কী ঘটেছে সবটাই তাঁকে জানিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি নির্লজ্জভাবে আমাকে দলে না রাখার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করলেন।’’

Be the first to comment on "বিসিসিআইকে লেখা চিঠিতে বিস্ফোরক মিতালী রাজ"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*