ভারতের হয়ে অভিষেকেই রেকর্ডে মায়াঙ্ক আগরওয়াল, মিটল কি ওপেনার সমস্যা?

মায়াঙ্ক আগরওয়ালঅভিষেক টেস্টে ব্যাট করছেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। ছবি: ইন্ডিয়ান ক্রিকেট টিমের ফেসবুক

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: বক্সিং ডে টেস্টের শুরুতেই রেকর্ডে মায়াঙ্ক আগরওয়াল  । ওপেনারের হাহাকারের মধ্যে তিনি এতদিন পর আলো দেখালেন ভারতীয় শিবিরকে। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে প্রথম দিনের নায়ক অবশ্যই মায়াঙ্ক আগরওয়াল। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট অভিষেক তো হলই তাঁর। সঙ্গে ভারতীয় ওপেনারের সমস্যাও মেটালেন ২৭ বছরেরে এই ব্যাটসম্যান। নেমেই খেললেন ৭৬ রানের ইনিংস। ভারতীয়দের হয়ে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অভিষেকে এটাই সর্বোচ্চ রান।

বুধবার  ভারতের হয়ে ওপেন করতে নেমেছিলেন হনুমা বিহারী ও মায়াঙ্ক আগরওয়াল। হনুমা ৮ রান করে আউট হয়ে গেলেও ১৬১ বলে ৭৬ রানের ইনিংস খেললেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। হাঁকালেন আটটি বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারি।

ম্যাচ শেষে মায়াঙ্ক বলেন, ‘‘আমি অবশ্যই খুশি কিন্তু আরও একটু চেয়েছিলাম। ৭৬ রান করেছি ঠিকই কিন্তু আমার ভাল লাগত যদি আমি আরও বেশি রান করে ক্রিজে টিকে থাকতে পারতাম দিনের শেষ পর্যন্ত।’’

হনুমা বিহারী ভরসা দিতে না পারলেও প্রথম থেকেই ভারতীয় ব্যাটিংয়ের হাল ধরলেন মায়াঙ্ক। পূজারার সঙ্গে তার পর থেকেই সমানে সমানে লড়াই চালিয়ে ভারতের ইনিংসে সচল রাখেন টেস্ট অভিষেক হওয়া মায়াঙ্ক। ১৬১ বলে ৭৬ রানের ইনিংস খেলে আউট হন তিনি। ৪০ রানে প্রথম উইকেট পড়েছিল ভারতের। মায়াঙ্ক আগরওয়াল যখন আউট হন তখন ভারতের রান ১২৩। মায়াঙ্ক ফিরতেই তাঁর জায়গা নেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

বক্সিং ডে টেস্ট, ভারতীয় দলে হতে পারে একগুচ্ছ পরিবর্তন

মেলবোর্নে ভারত প্রথম দিন শেষ করে ২১৫/২এ।  ক্রিজে ৬৮ রান করে রয়েছেন চেতেশ্বর পূজারা ও ৪৭ রান করে বিরাট কোহলি। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে দুটো উইকেট নেন প্যাট কামিন্স।

কঠিন সময়ে ভারতীয় দলের ওপেনিংয়ের দায়িত্ব এসে পড়েছিল মায়াঙ্কের কাঁধে। সেটা তিনি ভালই সামলালেন। মায়াঙ্ক বলেন, ‘‘ক্যাপ পাওয়াটা দারুণ অনুভূতি। অনেক কিছু মনের মধ্যে চলছিল যখন আমার হাতে ক্যাপ তুলে দেওয়া হল। যেটা আমি বাকি জীবনে বার বার উপভোগ করব।’’

এমএস ধোনি ফিরলেন

প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে তাঁর পারফর্মেন্স দেখেই তাঁকে ভারতীয় টেস্ট দলে ডেকে নেওয়া হয়। ২০১৩ সালে কর্নাটকের হয়ে প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল মায়াঙ্ক আগরওয়ালের। তার আগে ২০১২তে খেলেছিলেন তামিলনাড়ুর হয়ে। খেলেছেন ৪৬টি প্রথম শ্রেনীর ম্যাচ। গড় প্রায় ৫০। ১১১টি টি২০ ম্যাচও খেলেছেন। ২০১৭ সালে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ট্রিপল সেঞ্চুরি।

আইপিএল-এ দিল্লি, পুণে, বেঙ্গালুরুর হয়ে খেলেছেন মায়াঙ্ক। এই বছর রয়েছেন পঞ্জাবে।

Be the first to comment on "ভারতের হয়ে অভিষেকেই রেকর্ডে মায়াঙ্ক আগরওয়াল, মিটল কি ওপেনার সমস্যা?"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*