ত্রাভিস হেড, মন্থর পিচে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে একাই লড়াই চালাচ্ছেন তিনি

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জয় ভারতের

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: ত্রাভিস হেড না থাকলে আরও চাপে পড়ে যেত অস্ট্রেলিয়া। শুরুটা অস্ট্রেলিয়ারও ভাল হল না। ঠিক যেভাবে ধস নেমেছিল ভারতের ব্যাটিংয়ে সেভাবেই ধসে গেল অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিংও। তার মধ্যেই অস্ট্রেলিয়ার হয়েও উঠে এলেন আর এক পূজারা। ছ’নম্বরে নেমে কিছুটা লড়াই করার চেষ্টা করছেন ত্রাভিস হেড। এই প্রথম কেউ ৫০ রানের গণ্ডি পেড়লেন অস্ট্রেলিয়ার হয়ে। প্রথম দিন যে ২৫০ রানে থেমেছিল ভারতীয় দল দ্বিতীয় দিন তাতে একরানও জুড়তে পারলেন না ভারতের ব্যাটসম্যানরা। ক্রিজে ছিলেন মহম্মদ শামি। তাঁর সঙ্গে দ্বিতীয় দিন নেমেছিলেন যশপ্রীত বুমরা। কিন্তু দিনের প্রথম বলেই আউট হয়ে যান শামি।

শুরু থেকে দিনের শেষ পর্যন্ত চাপে রাখল প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়াকে।অশ্বিনের তিন, ইশান্তের দুই, বুমরার দুই উইকেটের দাপটে ২০০ রানও তুলতে পারল না হোম টিম। দ্বিতীয় দিনের শেষে ১৯১ রানে সাত উইকেট হারিয়ে থামতে হল অস্ট্রেলিয়াকে।

তিন বল খেলে আউট হন ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ। আর এক ওপেনার টেস্ট অভিষেক হওয়া মার্কাস হ্যারিসও দাঁড়াতে পারেননি। ২৬ রান করে অশ্বিনের বলে মুরলী বিজয়কে ক্যাচ দিয়ে আউট হন তিনি। এর পর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন অশ্বিন। পর পর তিন জনকে ফেরান তিনি। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘‘আমাদের মনে হয় আমরা ওদের রীতিমতো বোতলবন্দি করে ফেলেছি। ওদের ওপর চাপ সৃষ্টি করে উইকেট তুলে নিয়েছি। এটাই আমাদের লক্ষ্য ছিল।’’

চেতেশ্বর পূজারা, যাঁর ব্যাটে প্রথম দিনের শেষে মান বাঁচল ভারতের

লাঞ্চের আগে দুই উইকেট পড়ে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার। লাঞ্চ থেকে ফিরেই দলের রানে মাত্র সাত রানই যোগ করতে পেরেছিলেন চোট সারিয়ে দলে ফেরা উসমান খোয়াজা। অশ্বিনের বলে ২৮ রান করে আউট হলেন। অশ্বিন বলে ফেরেন চার নম্বরে ব্যাট করতে নামা শন মার্শ। মাত্র দু’রান করে আউট হলেন তিনি। মার্শের উইকেট নিয়ে অশ্বিন বলেন, ‘‘শন মার্শ দারুণ প্লেয়ার। আগে আমরা ভিডিওতে ওর ব্যাটিং দেখেছি। আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্যে আমরা সফল।’’

এর মধ্যেই একটু হাল ধরারা চেষ্টা করেছিলেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব। ৯৩ বলে ৩৪ রানের ইনিংসও খেলে ফেলেছিলেন। যশপ্রীত বুমরার বলে ঋষভ পন্থকে ক্যাচ দিয়ে প্যাভেলিয়নে ফেরেন তিনি। অধিনায়ক  টিম পাইন  ৫ রানে ইশান্ত শর্মার বলে ঋষভ পন্থকে ক্যাচ দিয়ে আউট হলেন। কামিন্স ফিরলেন ১০ রানে। তাঁকে ফেরালেন বুমরা।

হনুমা বিহারী না রোহিত শর্মা 

এখন পূজারার মতই একা অস্ট্রেলিয়া ব্যাটিংয়ের হাল ধরে রেখেছেন ত্রাভিস হেড। দ্বিতীয় দিন শেষে ত্রাভিস হেড অপরাজিত থাকলেন ১৪৯ বলে ৬১ রানে করে। উল্টোদিকে আট  রানে স্টার্ক। অস্ট্রেলিয়া ৮৮ ওভারে ১৯১/৭এ। ভারতের থেকে ৫৯ রানে পিছিয়ে। হাতে রয়েছে তিন উইকেট। পিচ নিয়ে অশ্বিন বলেন,  ‘‘আমরা গতকাল যখন ব্যাট করছিলাম তখনও পিচ এতটা মন্থর ছিল না। তবে এই পিচ ক্রমশ মন্থর হবে।’’

এ দিন গ্যালারিতে দেখা গেল বিরাট কোহলির স্ত্রী অনুষ্কা শর্মাকে। গ্যালারিতে সাধারণ সমর্থকদের মধ্যে বসেছিলেন তিনি। দর্শকরাই তাঁকে দেখতে পান। তার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে তাঁর অ্যাডিলেডে পৌঁছনোর কথা। মনে করা হচ্ছে প্রথম বিবাহ বার্ষিকী পালন করতেই তিনি অস্ট্রেলিয়া পৌঁছেছেন। আগামী ১১ ডিসেম্বর বিয়ের এক বছর পূর্ণ করবে বিরুষ্কা।

Be the first to comment on "ত্রাভিস হেড, মন্থর পিচে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে একাই লড়াই চালাচ্ছেন তিনি"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*