বৈঠকে চন্দ্রবাবু এবং মমতা, কথা হল বিজেপি বিরোধী জোট নিয়ে

বৈঠকে চন্দ্রবাবু এবং মমতাবৈঠকে চন্দ্রবাবু এবং মমতা। ছবি চন্দ্রবাবুর টুইটার থেকে।

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: বৈঠকে চন্দ্রবাবু এবং মমতা, বিজেপি বিরোধী মহাজোট নিয়ে আরও এক ধাপ এগোলেন তাঁরা। সোমবার নবান্নে এসে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে গেলেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডু

তেলুগু দেশম পার্টির নেতা চন্দ্রবাবু লোকসভা ভোটের আগে দেশ জুড়ে বিজেপি বিরোধী একটা মহাজোট গড়ে তোলার উদ্দেশ্য নিয়ে সম্প্রতি উদ্যোগী হয়েছেন। ইতিমধ্যেই তিনি কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দিল্লি গিয়ে দেখা করে এসেছেন। কংগ্রেসকে নিয়েই তিনি ওই জোট গড়তে চান। একই বিষয়ে তিনি কথা বলেছেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর সঙ্গে। তামিলনাড়ুতে গিয়ে দেখা করেছেন ডিএমকে নেতা তথা সদ্য প্রয়াত করুণানিধির পুত্র স্ট্যালিনের সঙ্গে। বৈঠক করেছেন সমাজবাদী পার্টির অখিলেশ যাদব এবং বহুজন সমাজবাদী পার্টির মায়াবতীর সঙ্গেও। এ দিন সেই তালিকায় ঢুকিয়ে নিলেন মমতার নাম।

মমতাও অনেক দিন ধরেই বিজেপির বিরুদ্ধে সরব। আগেও তিনি দেশ জুড়ে আঞ্চলিক দলগুলোকে সঙ্গে নিয়ে একটি বিরোধী জোট গড়ে তোলার ব্যাপারে সচেষ্ট হয়েছিলেন। এর আগে এ বিষয়ে তাঁর সঙ্গে এই নবান্নে এসেই দেখা করে গিয়েছেন তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। মমতা নিজেও দিল্লি গিয়ে অনেকের সঙ্গেই দেখা করেছিলেন। চন্দ্রবাবুর নয়া উদ্যোগে তিনি তাই থাকবেন এটাই প্রত্যাশিত ছিল রাজনৈতিক শিবিরগুলির কাছে।

মমতার সঙ্গে এ দিনের বৈঠকের পর  চন্দ্রবাবু নবান্নে দাঁড়িয়ে জানিয়েছেন, গণতন্ত্র,দেশ এবং দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বাঁচাতে তাঁরা একসঙ্গে লড়বেন। আর সেই লক্ষ্যেই তাঁরা গড়ে তুলতে চাইছেন একটি মহাজোট। মমতা জানিয়েছেন সেই জোটের মুখ হবে সবাই।

আগামী ২২ নভেম্বর দিল্লিতে একটি বৈঠকের ডাক দিয়েছিলেন চন্দ্রবাবু। সেখানে বিজেপি বিরোধী জোটের সকলের থাকার কথা ছিল। কিন্তু, মমতার সঙ্গে এ দিনের বৈঠকের পর সেই কর্মসূচি খানিকটা পিছিয়ে দিতে হয়েছে। কারণ, চন্দ্রবাবুর এই মহাজোটে কংগ্রেসও থাকছে বলে সূত্রের খবর। কিন্তু, মায়াবতী সম্প্রতি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে নানা কথা বলেছেন। এমনকি অখিলেশও কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের ব্যাপারে এখনও সম্মতি জানাননি। সব মিলিয়ে বিরোধা ঐক্যের চেহারাটা আরও খানিকটা পাকাপোক্ত না হলে সেই ছবিটা প্রকাশ্যে আনতে চাইছেন না মমতা।

১৪ ডিসেম্বর তারাপীঠে পুজো দিয়ে রথযাত্রার সূচনা করবেন অমিত শাহ

তা ছাড়া আগামী ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেডে তৃণমূলের সভা রয়েছে। তার আগে দিল্লিতে গিয়ে ওই সভায় যোগ দেওয়ার ব্যাপারে মমতার খুব একটা আগ্রহ ছিল না। সে কারণেই সংসদের শীতাকা‌লীন অধিবেশন শুরু হওয়ার আগেই বিজেপি বিরোধী দলগুলোর একত্রিত ওই বৈঠক দিল্লিতে হবে বলে জানিয়েছেন এ দিন বৈঠকে বসা চন্দ্রবাবু এবং মমতা।

Be the first to comment on "বৈঠকে চন্দ্রবাবু এবং মমতা, কথা হল বিজেপি বিরোধী জোট নিয়ে"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*