দু’কান কাটা গেল প্রৌঢ় এক যাত্রীর, বাসের ওভারটেকের খেসারত গড়িয়াহাটে

দু’কান কাটা গেল প্রৌঢ় এক যাত্রীরদু’কান কাটা গেল প্রৌঢ় এক যাত্রীর

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: দু’কান কাটা গেল প্রৌঢ় এক যাত্রীর, বাসের ওভারটেকের খেসারত। শুক্রবার সকালে দক্ষিণ কলকাতার গড়িয়াহাটের কাছে ওই দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম যাত্রী সমীর পাল বর্তমানে পঞ্চসায়রের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি।

কী ভাবে ওই দুর্ঘটনা ঘটল? কী ভাবেই বা ছিঁড়ে গেল দু’টি কানই?

কলকাতা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ভিড় বাসের পাদানিতে দাঁড়িয়েছিলেন দক্ষিণ কলকাতার হালতুর বাসিন্দা সমীর পাল। তাঁর ছেলে ভবানীপুরের একটি কলেজে পড়ে। তাঁকে নিয়ে কলেজে যাওয়ার জন্য ২১২ নম্বর রুটের একটি বাসে ওঠেন তিনি। কিন্তু ভিড় বাসে ভিতরে ঢুকতে পারেননি তিনি। তাই দাঁড়িয়েছিলেন পাদানিতে।

বাংলার আরও খবর পড়তে ক্লিক করুন এখানে

গড়িয়াহাট মোড়ের কাছে হঠাৎই বাসটি ব্রেক কষে। ফলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সমীরবাবু পড়ে যান। ঠিক সেই সময় ২১২ নম্বর রুটের বাসটিকে ওভারটেক করছিল ৩সি/২ রুটের একটি বাস। ওই বাসের গায়ে ধাক্কা লেগে সমীরবাবুর দু’টি কান ছিঁড়ে যায়। তাঁর বাঁ কানের বাইরের অংশের পুরোটাই ঝুলে পড়ে। কোনও মতে লেগেছিল চামড়াটুকু। ডান কানের উপরের অংশ ছেঁচে গিয়েছে। লতির উপরে চামড়ায় ঢাকা হাড় বেরিয়ে যায়।

প্রৌঢ় বাসযাত্রীর দু’কানের ওই অবস্থা দেখে শিউরে ওঠেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ দিন বিকেলেই পঞ্চসায়রের ওই বেসরকারি হাসপাতালে সমীরবাবুর দু’টি কানের অস্ত্রোপচার হয়েছে। কান জখম হওয়ার পাশাপাশি সমীরবাবুর বাঁ হাতের কনুইও ভেঙে গিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, নিয়ম ভেঙে বেপরোয়া গতিতে ৩সি/২ রুটের বাসটি ওভারটেক করায় দুর্ঘটনা ঘটেছে। একই সঙ্গে ওই বাসের চালক তৎপরতার সঙ্গে ব্রেক কষায় চাকার তলায় পিষ্ট হননি সমীরবাবু।

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)

Be the first to comment on "দু’কান কাটা গেল প্রৌঢ় এক যাত্রীর, বাসের ওভারটেকের খেসারত গড়িয়াহাটে"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*