অযোধ্যার রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলা মেটানোর মধ্যস্থতায় ৩ সদস্যের প্যানেল

অযোধ্যার রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলারাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ: ফের মধ্যস্থতার রাস্তাতেই হাঁটল সুপ্রিম কোর্ট।

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: অযোধ্যার রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলা মেটাতে ফের মধ্যস্থতার রাস্তাতেই হাঁটল সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ তিন সদস্যের একটি প্যানেল তৈরি করেছে। সেই প্যানেল মধ্যস্থতা করবে।

কে কে আছেন ওই প্যানেলে? সুপ্রিম কোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চ এ দিন ওই প্যানেলের জন্য তিন জনকে মনোনীত করেছে। প্যানেলের নেতৃত্বে থাকবেন প্রাক্তন বিচারপতি এফ এম কলিফুল্লা। প্যানেলের অন্য দুই সদস্য আধ্যাত্মিক গুরু রবিশঙ্কর ও প্রবীণ আইনজীবী শ্রীরাম পঞ্চু।

শীর্ষ আদালত নির্দেশ দিয়েছে, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ওই প্যানেল মধ্যস্থতার কাজ শুরু করবে। কবে ওই কাজ শেষ করতে হবে, তার রূপরেখাও তৈরি করে দিয়েছে আদালত। আট সপ্তাহের মধ্যে মধ্যস্থতার কাজ শেষ করে আট সপ্তাহের মধ্যে আদালতে জানাতে হবে। তবে চার সপ্তাহ পর মধ্যস্থতা প্রক্রিয়ার অগ্রগতির কথা জানাতে হবে আদালতকে।

কোথায় হবে এই মধ্যস্থতার কাজ? এ ব্যাপারেও নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। আদালতের নির্দেশ, উত্তরপ্রদেশের ফৈজাবাদেই এই মধ্যস্থতার কাজ হবে। যে ফৈজাবাদের নাম কিছু দিন আগেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ পাল্টে অযোধ্যা করেছেন। বিতর্কিত অযোধ্যাতে বসেই কী ভাবে মধ্যস্থতার কাজ করা সম্ভব, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

শুধু জায়গাই নয়, অযোধ্যার রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলা মেটাতে মধ্যস্থতাকারীদের নাম নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। রবিশঙ্কর প্রসাদকে কেন প্যানেলে রাখা হয়েছে, তা নিয়ে একাধিক সংগঠনের উষ্মা রয়েছে। শুধু তাই নয়, এই মধ্যস্থতাকারীদের নিরপেক্ষতা নিয়েও কথা উঠছে। তাঁদের কথা সব পক্ষ মেনে নেবে তো? উঠছে সে প্রশ্নও। পাশাপাশি প্রশ্ন, এর আগেও তো মধ্যস্থতার মাধ্যমে বিবাদ মেটানোর চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু, শেষমেশ তা কোনও কাজেই আসেনি। এ বার কি এতে সাফল্য আসবে? উঠছে প্রশ্ন।

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)

আদালত এবং মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসা সংগঠনগুলি ছাড়া এই গোটা প্রক্রিয়া ‌নিয়ে কোথা কোনও মুখো খোলা যাবে না বলেও প্যানেলের সদস্যদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি তিন সদস্যের এই প্যানেল নতুন সদস্যও নিয়োগ করতে পারে বলে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ।

অযোধ্যার রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলা মেটাতে যে প্যানেল করা হয়েছে তার তিন সদস্য অর্থাৎ প্রাক্তন বিচারপতি ফকির মহম্মদ ইব্রাহিম কলিফুল্লা, রবিশঙ্কর এবং প্রবীণ আইনজীবী শ্রীরাম পঞ্চু— তিন জনই তামিল। তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন হিন্দু সাধু, মুসলিমদের ওয়াকফ বোর্ড এবং পার্সোনাল ল বোর্ডের সদস্যেরা।

অযোধ্যায় রাম মন্দির সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত ১১ ডিসেম্বরের পর নেবেন মোদী, জানালেন ধর্মগুরু

Be the first to comment on "অযোধ্যার রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলা মেটানোর মধ্যস্থতায় ৩ সদস্যের প্যানেল"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*