বিস্ফোরক অনুষ্কা শর্মা বলে দিলেন, আমার মৌনতাকে দুর্বলতা ভাববেন না

বিস্ফোরক অনুষ্কা শর্মাবিরাট ও অনুষ্কা

জাস্ট দুনিয়া ডেস্ক: বিস্ফোরক অনুষ্কা শর্মা মুখ খুললেন টুইটারে। বিরাট কোহলির সঙ্গে সম্পর্ক হওয়ার পর থেকে বার বার ক্রিকেটের কারণেই বিতর্কে জড়িয়ে গিয়েছে অনুষ্কা শর্মার নাম। এতদিন তা নিয়ে কখনও মুখ খুলতে দেখা যায়নি অনুষ্কাকে। বিরাট কোহলি কখনও জবাব দিয়েছেন বিরাটের হয়ে কিন্তু চুপই থেকেছেন বলিউড অভিনেত্রী। শেষ পর্যন্ত তাঁকে মুখ খুলতেই হল। টুইটারে তিনি এতদিনের জমে থাকা সব খারাপ লাগা উগরে দিলেন। সঙ্গে এটাও বলে দিলেন, তাঁর মৌনতাকে তাঁর দুর্বলতা ভেবে নেওয়ার কোনও কারণ নেই।

বৃহস্পতিবারই এই নিয়ে তোলপাড় হল সোশ্যাল মিডিয়া। প্রাক্তন উইকেটকিপাপ ফারুখ ইঞ্জিনিয়ারের একটা মন্তব্য ঘিরেই যত সমস্যা। হঠাৎ তিনি দাবি করে বসেন, লন্ডন বিশ্বকাপে তিনি নাকি ভারতীয় সিনিয়র ক্রিকেট দলের নির্বাচকদের দেখেছেন, অনুষ্কাকে চা এনে দিতে।

খেলা সংক্রান্ত আরও খবর পড়তে এখানে ক্লিক করুন…

নির্বাচকদের তিনি ‘মিকি মাউস’ আখ্যা দিয়েছেন। এবং দল নির্বাচনে বিরাট কোহলির একাধিপত্ত নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। প্রশ্ন তুলেছেন নির্বাচকদের যোগ্যতা নিয়েও। ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার বলেছেন, ‘‘তিনি কোনও নির্বাচককেই চেনেন না। লন্ডনে বিশ্বকাপের ম্যাচে ভারতীয় ব্লেজার পরা কাউকে দেখে তিনি জানতে চান তিনি কে। তখনই ইঞ্জিনিয়ার জানতে পারেন তিনি নির্বাচক। এবং সেই নির্বাচক ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির স্ত্রী অনুষ্কা শর্মাকে চা দিচ্ছিলেন।

এমন অভিযোগ মেনে নিতে পারেননি অনুষ্কা। এত বছরের সব অভিযোগ একসঙ্গে করে তিনি টুইটারে একটি পোস্ট করেছেন। যেখানে তিনি লেখেন, ‘‘এতদিন কিছু বলিনি, বিরাটের পারফর্মেন্স, মাঠের ভিতরের নানা বিষয়ে নাম জরিয়েছে আমার। আমি চুপ করে থেকেছি। আমার বয় ফ্রেন্ডের খারাপ পারফর্মেন্স তার জন্য আমি দায়ী কিছু বলিনি। এখন আমার স্বামী সে। তাঁর দলের সঙ্গে ভারতীয় দূতাবাসে ছবি, তা নিয়ে নানা কথা। তাও কিছু বলিনি।’’

অনুষ্কা আরও লেখেন, ‘‘২০১৮তে লন্ডনের ভারতীয় দূতাবাসে ভারতীয় দলের সঙ্গে আমারও নিমন্ত্রণ ছিল। আমাকে হাইকমিশনারের স্ত্রী দলের সঙ্গে ছবি তুলতে বাধ্য করেছিল। আমার অস্বস্তি ছিল। তা নিয়ে শেষ পর্যন্ত বোর্ডকে অফিশিয়ালি মন্তব্য রাখতে হয়েছে। তাও আমি চুপ করে থেকেছি।’’
অনুষ্কা ফারুখ ইঞ্জিনিয়ারকে উদ্দেশ্য করে লেখেন, ‘‘আমনার নির্বাচকদের নিয়ে বক্তব্য রয়েছে সেটা আপনার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয় আপনি দিতেই পারেন। কিন্তু আমাকে টানবেন না। আমি এই যে কোনও জায়গায় আমাকে টেনে আনার অধিকার কাউকে দিইনি। আর আমি বিশ্বকাপের একিট ম্যাচেই গিয়েছিলাম এবং সেখানে ফ্যামিলি বক্সে বসেছিলাম নির্বাচকদের বক্সে নয়।’’

অনুষ্কার সব সময় বিরাটের সঙ্গে ট্যুরে যাওয়া নিয়ে বার বার প্রশ্ন উঠেছে। সেই কথাও এদিন তিনি পরিষ্কার করেছেন। তিনি লেখেন, ‘‘শুনেছি বোর্ড নাকি আমার টিকিট আর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে। তবে সবার জানার জন্য বলে রাখি, আমার ম্যাচ টিকিট, বিমান টিকিট আমি নিজেই কাটি।’’

এর আগে যখন বিরাট-অনুষ্কার বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছিল সেই সময় বিরাটের পারফর্মেন্সে অনুষ্কা না থাকায় উন্নতি হয়েছে বলে ফ্যানরা দাবি করেছিলেন। সেই সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় ফ্যানদের একহাত নিয়েছিলেন স্বয়ং বিরাট কোহলি। অনেক ক্রিকেটারও সেই সময় বিরাটের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। তার পর বিরাট-অনুষ্কার সম্পর্ক জোড়া লাগে। আর এখন সুখিতম সেলিব্রিটি দম্পতি বিরুষ্কা। তবে বিতর্ক পিছু ছাড়েনি।

(জাস্ট দুনিয়ার ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন)

Be the first to comment on "বিস্ফোরক অনুষ্কা শর্মা বলে দিলেন, আমার মৌনতাকে দুর্বলতা ভাববেন না"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*