শামির গাড়িতে লরির ধাক্কা, অল্পের জন্য প্রানে বাঁচলেন

মহম্মদ শামিমহম্মদ শামি।

জাস্ট দুনিয়া ব্যুরো: মহম্মদ শামির সময়টা একদমই ভাল যাচ্ছে না। তাও যা গড়াপেটার অভিযোগ থেকে মুক্ত হয়ে ক্রিকেটের মূলস্রোতে ফেরার রাস্তাটা তৈরি হয়েছিল তাও সাময়িক ধাক্কা খেল তাঁর গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়ায়। অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন ভারতের এই পেসার। দেহরাদূন থেকে দিল্লিতে ফিরছিলেন তিনি। গত দু’দিন ধরে দেহরাদূনে অভিমন্যু ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে  অনুশীলন করছিলেন। ফেরার পথেই ঘটে দুর্ঘটনা। একটি লরি এসে ধাক্কা দেয় শামির গাড়িতে।

ভারতীয় যুব দলের প্লেয়ার অভিমন্যু ঈশ্বরনের  বাবার অ্যাকাডেমি এটি। নিজেকে মানসিকভাবে ক্রিকেটে ফেরাতেই সেই অ্যাকাডেমিকে গিয়েছিলেন শামি। অভিমন্যুর  বাবা ঈশ্বরন আরপি পিটিআইকে জানিয়েছেন, ‘‘শামি ঠিক রয়েছে। দু’দিনের ট্রেনিং শেষে দেহরাদূন থেকে দিল্লি ফিরছিল ও। ছোট একটা দুর্ঘটনা ঘটেছে। সঙ্গে সঙ্গেই ওকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কয়েকটি সেলাই পড়েছে। ও একদম ঠিক রয়েছে। তবে কয়েকদিন বিশ্রাম নিতে বলেছে ডাক্তার। যদি শরীর ঠিক থাকে তা হলে সোমবার ও দিল্লি ফিরবে।’’ তিনি এও জানিয়েছেন, শামির চোট তাঁর আইপিএল খেলায় ব্যাঘাত ঘটাবে না।

গত প্রায় একমাস ধরে খবরের শিরোনামেই রয়েছেন মহম্মদ শামি। স্ত্রী হাসিন জাহানের একগুচ্ছ অভিযোগের মধ্যে থেকে একটিতে আপাতত মুক্তি পেয়েছে বোর্ডের হস্তক্ষেপে। হাসিনের অভিযোগ ছিল শামি এক পাকিস্তানি মহিলা ও এক ব্যবসায়ীর থেকে টাকা নিয়েছিলেন। তখনই হাসিন সরাসরি না বললেও চলে আসে গড়াপেটা প্রসঙ্গ। শুরু হয় বোর্ডের তদন্ত। এবং একসপ্তাহ পর বোর্ড জানিয়ে দেয় শামি কোনওভাবেই গড়াপেটার সঙ্গে যুক্ত নয়। যদিও তাঁর মাথায় এখনও ঝুলছে, একাধিক নারীসঙ্গ, স্ত্রীকে খুনের হুমকী, দাদাকে দিয়ে স্ত্রী শ্লীলতাহানির চেষ্টার মতো একগুচ্ছ অভিযোগ।

গড়াপেটার অভিযোগ থেকে মুক্ত শামি

বোর্ড শামিকে গড়াপেটার অভিযোগ থেকে মুক্তি দেওয়ার পর তাঁকে ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে। গ্রেড ‘বি’তে রাখা হয়েছে তাঁকে। গ্রে ‘বি’তে তিনি পাবেন তিনকোটি। আইপিএল-এ খেলার জন্যও ছাড়পত্র পেয়ে গিয়েছেন তিনি। ৭ এপ্রিল থেকে শুরু হবে আইপিএল। শামি খেলবেন দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের হয়ে। রাইট টু ম্যাচ কার্ডে শামিকে তুলে নিয়েছিল দিল্লি। দিল্লির সিইও দুয়া জানিয়েছেন, ‘‘আমরা বিসিসিআই-এর তরফে ক্লিয়ার সার্টিফিকেট পেয়ে গিয়েছি। একে গড়াপেটার সব রকম অভিযোগ থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। আমরা ওকে ফিরে পেয়ে খুশি। আমরা আশা করছি শিবিরের প্রথম দিন থেকেই ওকে পেয়ে যাব।’’

শামির

বাঁদিকে সেই লরি। ডানদিকে শামির গাড়ি।